ঢাকা, বৃহস্পতিবার 24 April 2014 ১১ বৈশাখ ১৪২১, ২৩ জমাদিউসসানি ১৪৩৫ হিজরী
Online Edition

কমলাপুর স্টেডিয়ামে সিনথেটিক টার্ফ বসছে এ বছরই

স্পোর্টস রিপোর্টার: কমলাপুরস্থ বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে আন্তর্জাতিক মানের সিনথেটিক টার্ফ বসানোর কাজ এ বছরই সম্পন্ন হবে। ফিফার ডেভলপমেন্ট প্রোগ্রামের আওতায় বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) এই অত্যাধুনিক টার্ফটি পাচ্ছে। বিশ্ব ফুটবলের নিয়ন্ত্রণ সংস্থা ফিফার গোল প্রজেক্ট-৪ এর অধীনে এ টার্ফ পাচ্ছে বাফুফে। এটি হবে দেশের ফুটবলে দ্বিতীয় সিনথেটিক টার্ফ। প্রথমটি বসানো হয়েছিল বাফুফে ভবন সংলগ্ন আরামবাগ বালুর মাঠে। গোলপ্রজেক্টের প্রোগ্রামে এবার দ্বিতীয় টার্ফটি কমলাপুর স্টেডিয়ামে বসানোর জন্য আবেদন করেছিলো বাফুফে। গত বছর ফিফা তা অনুমোদন করে। টার্ফটি বসানোর জন্য ফিফার শর্ত ছিলো স্টেডিয়ামটি বিশ বছরের জন্য বাফুফের অনুকূলে লিজ থাকতে হবে। যুব ও ক্রীড়ামন্ত্রণালয় বাফুফেকে স্টেডিয়ামটি লিজ দেয়। টার্ফ ছাড়া ও ফিফা সভাপতি সেফ ব্লাটার বাফুফেকে সাত হাজার বল উপহার হিসেবে পাঠিয়েছে। ফিফা কর্তৃক বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনকে অনুদান হিসেবে প্রদত্ত ফুটবলসমূহ হস্তান্তর এবং ঢাকায় আর্টিফিসিয়েল টার্ফ স্থাপন ও ফুটবলের ডেভেলপমেন্ট সম্পর্কে আলোচনার লক্ষ্যে ফিফা ডেভেলপমেন্ট অফিসার ড. শাহজি প্রভাকরণ ঢাকায় আসেন। টার্ফ স্থাপনের লক্ষ্যে গতকাল বুধবার সকালে তিনি বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়াম পরিদর্শন করেন। এর পর দুপুরে বাফুফে ভবনের কনফারেন্স রুমে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রভাকরণ ছাড়াও উপস্থিত ছিলেন বাফুফে সভাপতি কাজি মোঃ সালাউদ্দিন, সিনিয়র সহ-সভাপতি আব্দুস সালাম মুর্শেদী ও সাধারণ সম্পাদক আবু নাইম সোহাগ। সম্মেলনে প্রভাকরণ জানান, ‘ফিফা বাফুফেকে সাত হাজার (বাফুফে চেয়েছিল ১০ হাজার) ‘ব্রাজুকা’ ফুটবল (ব্রাজিল বিশ্বকাপে ব্যবহৃত বলের ডিজাইনে তৈরি করা ফুটবল) দিয়েছে। এই বলগুলো বাফুফে জেলা পর্যায়ে সরবরাহ করবে, এতে দেশের ফুটবলের উন্নতিতে সহায়ক হবে।’ প্রভাকরণ আরও জানান, ‘আগামী সেপ্টেম্বরে চালু হতে যাচ্ছে সিলেট ফুটবল একাডেমি। বাংলাদেশের ফুটবল ঠিক পথেই আছে। যার প্রতিফলন ঘটেছে সম্প্রতি গোয়ার অনুষ্ঠিত ফিফা ফ্রেন্ডলি ম্যাচে স্বাগতিক ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের ২-২ ড্র করাটা।’ বাফুফে সভাপতি সালাউদ্দিন বলেন, ‘সম্প্রতি আমি যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ে গিয়ে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে তিনটি প্রস্তাব দিয়েছি। জেলা পর্যায়ে যেসব মাঠ আছে, সেগুলোর অনেকগুলোতেই ক্রিকেট পিচ করা হয়েছে। ফলে ফুটবল খেলা চালাতে সমস্যা হয়। এ সমস্যা সমাধানে আমি বলেছি ফুটবলের জন্য কমপক্ষে ছয় মাস মাঠ ছেড়ে দিতে, তাহলে লিগের খেলাগুলো আয়োজন করা যাবে। ক্রীড়া মন্ত্রণালয় ক্রীড়া খাতে জেলা ক্রীড়া সংস্থাকে বিভিন্ন খেলার জন্য যে অর্থ বরাদ্দ করে। এই খেলাগুলোর মধ্যে ফুটবলও আছে। আমি বলেছি ফুটবলের জন্য এই টাকাটা আলাদা করে দেয়া হোক। তাহলে হিসাব অনুযায়ী এই অর্থের ৩৫ শতাংশ অর্থ পাবে জেলা ফুটবল সংস্থা (ডিএফএ)। সেই সঙ্গে মন্ত্রণালয় থেকে ফুটবলের জন্য আলাদাভাবে কিছু অর্থ সাহায্য চেয়েছি, যা খুবই সামান্য।’ সিলেট একাডেমি প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘এনএসসি এই সিলেট একাডেমি নিয়ে গত দুই বছর যে নাটক করেছে, তা সবাই ভালোভাবেই অবগত। মিটিংয়ে ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীকে খুবই আন্তরিক ও ইতিবাচক মনে হয়েছে। তিনি বলেন, একাডেমির বাকি কাজগুলো দ্রুত শেষ করা হচ্ছে। আগামী জুলাইয়েই তিনি একাডেমি বাফুফের কাছে হস্তান্তর করবেন এমনটি অশ্বস্ত করেছেন।’ তবে টার্ফ পেতে ও স্থাপিত হতে আরও কিছুদিন সময় লাগবে। তবে এ বছরেই টার্ফটি স্থাপিত হবে এবং ব্যবহারও শুরু হবে এ বছরেই। উল্লেখ্য, টার্ফটির আয়তন হবে ১০৫ ফুট দৈর্ঘ্য এবং ৬৮ ফুট প্রস্থ, যা ফিফার বেঁধে দেয়া পরিমাপ। আর কৃত্রিম ঘাসের মাঠ বসাতে ফিফার ব্যয় হবে প্রায় ৭ লাখ ডলার।

গিগস-এর সহকারী স্কোলস

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের অন্তর্বর্তীকালীন কোচ গিগসের সহকারী ক্লাবটির সাবেক মিডফিল্ডার পল স্কোলস। তিনি সহকারী কোচের দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন বলে বুধবার ক্লাবের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে। মঙ্গলবার ডেভিড ময়েসকে বরখাস্ত করার পর ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের অন্তর্বর্তীকালীন কোচের দায়িত্ব নেন ৪০ বছর বয়সী গিগস। আগে থেকেই তার সঙ্গী হিসেবে ব্যাক রুম স্টাফের দায়িত্বে রয়েছেন নিকি ও নেভিল। আর ২০১১ সালে অবসর নেয়ার পর প্রথম সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য হলেও কোচিংয়ের দায়িত্বে যোগ দিলেন স্কোলস। বাসস/এএফপি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ