ঢাকা, সোমবার 18 February 2019, ৬ ফাল্গুন ১৪২৫, ১২ জমাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

নির্বাচন কমিশন সম্পূর্ণ অযোগ্যতার পরিচয় দিচ্ছে: ফখরুল

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক:

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘যেটা ছিল স্বাধীনতার মূল চেতনা, সেই গণতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠা করার জন্য, আমাদের সংগ্রাম চলছে, চলবে। দেশনেত্রীর মুক্তির সংগ্রাম চলছে, চলবে।’

আজ রোববার মহান বিজয় দিবসে বিএনপির পক্ষ থেকে সাভারে জাতীয় স্মৃতিসৌধে ফুল দিয়ে বীর শহীদদের শ্রদ্ধা জানানোর পর সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপে এ মন্তব্য করেন বিএনপির মহাসচিব।

আজ সকাল নয়টার দিকে বিএনপির পক্ষ থেকে জাতীয় স্মৃতিসৌধে শ্রদ্ধা জানানো হয়। এ সময় মির্জা ফখরুলের সঙ্গে বিএনপির কেন্দ্রীয় ও স্থানীয় নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘মহান বিজয় দিবসে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের পক্ষ থেকে, বেগম খালেদা জিয়ার পক্ষ থেকে আমরা স্মৃতিসৌধে এসেছি মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে। আজকের এই দিনে আমরা শ্রদ্ধা নিবেদন করছি স্বাধীনতার ঘোষক শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের প্রতি। আমরা শ্রদ্ধা নিবেদন করছি, লাখো শহীদের প্রতি যারা স্বাধীনতার জন্য প্রাণ বিসর্জন দিয়েছেন।’

মির্জা ফখরুল বলেন, মুক্তিযুদ্ধের মূল চেতনা ছিল গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা। আজ ফের সেই চেতনা প্রতিষ্ঠার জন্য, গণতন্ত্রের অধিকার প্রতিষ্ঠার জন্য তাঁদের সংগ্রাম করতে হচ্ছে।

ফখরুল বলেন, ‘কিন্তু  দুর্ভাগ্য আমাদের আজকের এই বিজয়ের দিনে পুরো জাতি এই বিজয় আনন্দ উপভোগ করতে পারছে না। একটা জাতীয় সংসদ নির্বাচন ঘোষণা করা হয়েছে। কিন্তু এই জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে একটা প্রহসনে পরিণত করবার জন্য সরকার যে হামলা, মামলা, অত্যাচার, নির্যাতন, নিপীড়ন চালাচ্ছে তাতে সেই নির্বাচন এখন একটা প্রহসনে পরিণত হয়েছে। নির্বাচন কমিশন অযোগ্যতার পরিচয় দিচ্ছে।’

বিএনপির মহাসচিব আরো বলেন, ‘আজকে প্রতিদিন বিএনপির নেতাকর্মীদের ওপরে, ঐক্যফ্রন্ট এবং জোট নেতাকর্মীদের ওপরে আক্রমণ চালানো হচ্ছে। হামলা চালানো হচ্ছে, খুন করা হচ্ছে, গুলি করা হচ্ছে এবং সরকার সেটিতে অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে। তাই আজকের এই দিনে আমরা অত্যন্ত ভারাক্রান্ত হৃদয়ে গণতন্ত্র থেকে বঞ্চিত হয়েছি। যেটা ছিল স্বাধীনতার মূল চেতনা, সেই গণতন্ত্রকে প্রতিষ্ঠা করার জন্য আমাদের সংগ্রাম চলছে, চলবে। দেশনেত্রীর মুক্তির সংগ্রাম চলছে, চলবে। ’

নির্বাচন কমিশনের বিরুদ্ধে অদক্ষতার অভিযোগ আনেন বিএনপির মহাসচিব।

দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন,  ‘তারা জবরদস্তি করে জিততে চায়। কিন্তু জনগণ তা প্রতিহত করা শুরু করেছে। আমরা বিশ্বাস করি আগামী দিনে জনগণ গণতান্ত্রিকভাবে সরকারের সব অপচেষ্টা ব্যর্থ করে দিয়ে ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে জোটকে বিজয়ী করবে, ধানের শীষকে বিজয়ী করবে। ইনশা আল্লাহ আমরা দেশে ঐক্যফ্রন্ট এবং জোটের নেতৃত্বে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা করব, সুশাসন পুনঃপ্রতিষ্ঠা করব।   আমাদের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করব ইনশা আল্লাহ।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ