ঢাকা, সোমবার 16 September 2019, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ মহররম ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

শ্রীলংকার বোমা হামলায় শেখ সেলিমের নাতি নিহত, জামাতা আহত

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলায় আওয়ামী লীগ নেতা শেখ ফজলুল করিম সেলিমের ৮ বছর বয়সী নাতি জায়ান চৌধুরী নিহত হয়েছেন। এছাড়া তার জামাতা মশিউল হক চৌধুরী প্রিন্স আহত হয়ে সেখানকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।এর আগে সন্ধ্যা পর্যন্ত নিখোঁজ ছিল শিশু জায়ান। রাতে শিশুটির মৃত্যুর খবর পায় পরিবারের সদস্যরা।কলম্বোয় নিযুক্ত বাংলাদেশ হাইকমিশনের পক্ষ থেকে এই তথ্য জানানো হয়েছে।  এই খবরে শেখ সেলিমের স্ত্রী ও দুই ছেলে কলম্বোর উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন বলে একাধিক গণমাধ্যমে জানিয়েছে।

গতকাল রোববার শ্রীলঙ্কায় ইস্টার সানডেতে গির্জা, অভিজাত হোটেল ও রাজধানীর কলম্বোর বাইরে দুটিসহ মোট আটটি সিরিজ বোমা হামলার ঘটনায় এ পর্যন্ত ২০৭ জন নিহতের খবর জানা গেছে।

দেশটির নিরাপত্তা কর্মকর্তারা জানান, হামলার সময় খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব ইস্টার সানডে উপলক্ষে গির্জায় প্রার্থনা চলছিল। হামলায় দুটি আত্মঘাতী বোমা বিস্ফোরণ ঘটানো হয় বলে সন্দেহ তাদের।সকাল সাড়ে ৮টা থেকে পৌনে ৯টার মধ্যে কলম্বো ও বাট্টিকালোয়ার দুটি গির্জায় বোমা হামলার ঘটনা ঘটে।এর কাছাকাছি সময়ে রাজধানী কলম্বোতে অবস্থিত তিনটি পাঁচ তারকা হোটেলে বোমা বিস্ফোরণ ঘটে। হোটেলগুলো হচ্ছে শাং-রিলা, সিনামন গ্র্যান্ড ও কিংসবেরি হোটেল।

শেখ সেলিমের মেয়ে শেখ আমেনা সুলতানা সোনিয়া পাঁচতারা হোটেল শাং রি-লায় দুই ছেলে ও স্বামীকে নিয়ে অবস্থান করছিলেন।

সংসদ সদস্য শেখ সেলিম প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ফুপাতো ভাই।  

হামলার সময় হোটেলের নিচতলার রেস্তোরাঁয় সকালের নাস্তা করতে গিয়েছিলেন প্রিন্স ও তার বড় ছেলে জায়ান। ছোট ছেলে জোহানকে নিয়ে শেখ সোনিয়া ওই সময় হোটেলের কক্ষে ছিলেন। ফলে হামলা থেকে বেঁচে গেছেন তারা।

এদিকে বার্তা সংস্থা বাসস জানিয়েছে, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বর্তমানে ব্রুনাইয়ে সরকারি সফরে আছেন। সন্ধ্যায় দেশটির রাজধানী বন্দর সেরি বেগাবানের এম্পায়ার হোটেল অ্যান্ড কান্ট্রি ক্লাবে প্রবাসী বাংলাদেশিদের দেওয়া এক গণসংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন প্রধানমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘শ্রীলঙ্কার আটটি স্থানে সংঘটিত বোমা হামলায় বহু লোক নিহত ও আহত হয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘আমি এই বর্বরোচিত ঘটনার তীব্র নিন্দা জানাই।’

এরপর শেখ হাসিনা বলেন, ‘আরেকটি দুঃখজনক ঘটনা হলো শেখ ফজলুল করিম সেলিমের মেয়ের পরিবার শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলার শিকার হয়েছে।’ তিনি বলেন, ‘সেলিমের মেয়েজামাই ও নাতি এ সময় একটি রেস্টুরেন্টে খাচ্ছিলেন। সেখানে একটি বোমা বিস্ফোরণ ঘটে। বিস্ফোরণে মেয়েজামাই আহত হন এবং আজ বিকেল পর্যন্ত নাতির কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি।’

ডিএস/এএইচ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ