ঢাকা, মঙ্গলবার 24 September 2019, ৯ আশ্বিন ১৪২৬, ২৪ মহররম ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

গাইবান্ধায় ‘বন্ধুকযুদ্ধে’ বিচারাধীন মামলার আসামি নিহত

সংগ্রাম অনলাইন ডেস্ক: গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে কথিত ‘বন্ধুকযুদ্ধে’ চিনু মিয়া (৩৮) নামে এক আসামি নিহতের কথা জানিয়েছে পুলিশ।বৃহস্পতিবার দিবাগত রাতে উপজেলার কাটাখালি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। খবর ইউএনবির।

নিহত চিনু মিয়া গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার দরবস্ত ইউনিয়নের বিশ্বনাথ গ্রামের মৃত নুরু ইসলামের ছেলে। পুলিশের দাবি, তার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইন, হত্যাচেষ্টা, প্রতারণা, চাঁদাবাজি, অগ্নিসংযোগ ও নাশকতাসহ ১৯টি মামলা আদালতে বিচারাধীন রয়েছে।

গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম মেহেদী হাসানের ভাষ্য, গত বুধবার রাত ১০টার দিকে দরবস্ত ইউনিয়নের বিশ্বনাথ গ্রামের বাঁধের ওপরে পুলিশের কাছ থেকে হাতকড়াসহ চিনুকে ছিনিয়ে নেয় তার সহযোগী ও স্বজনরা। এ সময় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে চিনুর সহযোগী নুর আলম ও তাজনুরকে আটক এবং দুটি মোটরসাইকেল উদ্ধার করে।

বৃহস্পতিবার গভীর রাতে চিনু ও তার সহযোগীরা চর এলাকায় পালিয়ে যাচ্ছে এমন খবর পেয়ে পুলিশ কাটাখালি এলাকায় অবস্থান নেয়। দিবাগত রাত সাড়ে ৩টার দিকে চিনু ও তার সহযোগীরা কাটাখালিতে পৌঁছালে পুলিশ তাদের আটকের চেষ্টা করে। এ সময় পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুড়ে তারা। পরে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়।

ওসির দাবি, এক পর্যায়ে গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যায় চিনু। পরে ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করা হয়।

নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে বলে জানান পুলিশের ওই কর্মকর্তা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ