ঢাকা, বৃহস্পতিবার 15 February 2018, ৩ ফাল্গুন ১৪২৪, ২৮ জমদিউল আউয়াল ১৪৩৯ হিজরী
Online Edition
  • খাবার গ্রহণে সতর্ক হোন

    খাবার গ্রহণে সতর্ক হোন

    শারীরিক অসুস্থতার জন্য স্বাস্থ্যকর খাবারের বিকল্প নেই। অনেকেই হাতের সামনে যা পান যত্রতত্র গলাধঃকরণ করেন। এটা ঠিক নয়। আহারের ব্যাপারে সতর্ক হওয়া উচিত। সবার উচিত কোন খাবার খাচ্ছি, কেন খাচ্ছি সেটা আগে দেখে পরে খাওয়া। দই: দই যদি টক বা টাটকা না হয় তাহলে না খাওয়াই ভালো। তাই কোন রেস্তোরাঁর খাবার টাটকা তা নিশ্চিত না হয়ে ভোজন শেষে দই না খাওয়া ভালো। পুরনো ছাঁচে পাতা দই খেলে পেটের অসুখ হতে পারে।ডিম: যখন ডিম খাবেন, দেখবেন যেন ... ...

    বিস্তারিত দেখুন

  • শ্বাসতন্ত্রের সমস্যায় করণীয়

    শ্বাসতন্ত্রের সমস্যায় করণীয়

    মানুষের জীবিকা নির্বাহের জন্য নানা ধরনের পেশায় নিয়োজিত থাকে। কেউবা উন্নত, ভাল এবং স্বাস্থ্যকর পরিবেশে কাজ করে, ... ...

    বিস্তারিত দেখুন

  • ডায়াবেটিস রোগী কী খাবেন কতটুকু খাবেন?

    ডায়াবেটিস রোগী কী খাবেন কতটুকু খাবেন?

    দুই ধরনের খাবার গ্রহণকারী রোগীদেরই দৈনিক ৫০০ মিলি দুধ (ননিবিহীন) ও ৩০ গ্রাম চর্বি গ্রহণ করতে হবে। গোশত সপ্তাহে বা ... ...

    বিস্তারিত দেখুন

  • মুখের দুর্গন্ধ বিব্রতকর সমস্যা

    মুখের দুর্গন্ধ বিব্রতকর সমস্যা

    মুখের দুর্গন্ধের কারণে মানুষ জনসম্মুখে যেতে লজ্জাবোধ করেন। মুখের এই দুর্গন্ধ কেন হয়, তা নিয়ে বিজ্ঞানের গবেষণা ব ... ...

    বিস্তারিত দেখুন

  • একিউট রাইনাইটিস

    একিউট রাইনাইটিস

    হঠাৎ করে যদি নাকের ভেতর মিউকাস মেমব্রেনে প্রদাহ হয় তাকে একিউট রাইনাইটিস বলে। ভাইরাসের সংক্রমণে এমন হয়। এটি অনেক ... ...

    বিস্তারিত দেখুন

  • লিউকোরিয়া সমস্যা

    লিউকোরিয়া সমস্যা

    ঘটনা- ১: কিছু দিন আগে বছর চল্লিশের এক ভদ্রমহিলা আমার চেম্বারে এলেন তার কিশোরী মেয়েকে সাথে নিয়ে। মিষ্টি মেয়েটির ... ...

    বিস্তারিত দেখুন

  • শিশুর খাবারে অরুচি ও প্রতিকার

    আজকের ছোট্ট শিশু আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। একটি শিশু জন্ম গ্রহণের পর থেকে ছয় মাস পর্যন্ত শুধু মায়ের বুকের দুধ পান করলেই তার পুষ্টিগুণ সম্পন্ন হয়। কিন্তু ছয় মাস বয়সের পর থেকেই তার প্রয়োজন হয় বাড়তি খাবারের। আজকাল বেশিরভাগ বাবা মা অভিযোগ করে থাকেন তাদের শিশুদের খাবারে অরুচি নিয়ে।এতে বাবা মা উৎকণ্ঠায় ভোগেন। কারণ সঠিক পুষ্টিগুণ সম্পন্ন খাবার না খেলে শিশুর শারীরিক ও মানসিক বৃদ্ধি ... ...

    বিস্তারিত দেখুন

  • চুলকানি হলে করণীয়

    স্ক্যাবিস রোগ যা আমাদের কাছে সাধারণত: চুলকানী নামে পরিচিত একটি ছোয়াচে চর্মরোগ। একে বাংলায় খোস-পাঁচড়া, দাদ বা বিখাউজ বলা হয়। সাধারণত স্পর্শের মাধ্যমে এই রোগ ছড়ায়। আক্রান্ত ব্যক্তির ব্যবহূত তোয়ালে, বালিশ ও বিছানার চাদর ব্যবহার করলে এ রোগ হতে পারে। এছাড়া স্কুলেযাওয়া শিশুরাও এতে ব্যাপকভাবে আক্রান্ত হয়। সারকপটিস স্ক্যাবি নামক এক ধরণের জীবাণু ত্বকের অগভীরে ডিম পারে এবং বারোজ ... ...

    বিস্তারিত দেখুন

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ