ঢাকা, শুক্রবার 14 November 2014 ৩০ কার্তিক ১৪২১, ২০ মহররম ১৪৩৬ হিজরী
Online Edition

গাইবান্ধায় বিয়ের দাবিতে ৪ দিন ধরে অনশনরত প্রেমিক লাপাত্তা

গাইবান্ধা সংবাদদাতা: জেলার সাদুল্যাপুর উপজেলায় সোহাগী (২১) নামে স্বামী পরিত্যক্তা এক নারী বিয়ের দাবিতে ৪ দিন ধরে অনশন করে যাচ্ছেন তার দ্বিতীয় প্রেমিক শহিদুল হকের (১৮) বাড়িতে। উপজেলার ফরিদপুর ইউনিয়নের মিরপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। বিষয়টি এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।
এদিকে, সোহাগী বাড়িতে অবস্থানের খবর পেয়ে প্রেমিক শহিদুল হক লাপাত্তা হয়েছেন। সোমবার সকালে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত সোহাগী প্রেমিক শহিদুলের বাড়িতে অবস্থান করছিলেন। অপরদিকে প্রেমিকা তার প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান নেয়ায় স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানের কাছে বিচার চেয়েছেন গ্রামের লোকজন।
স্থানীয়রা জানান, মিরপুর গ্রামের মনদেল মিয়ার মেয়ে সোহাগীর এর আগে পার্শ্ববর্তী পীরগঞ্জ উপজেলার জনৈক এক ব্যবসায়ী ছেলের সঙ্গে বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পরেই দুই পক্ষের সমঝোতায় তাদের বিচ্ছেদ হয়। এরপর থেকে সোহাগী তার বাবার বাড়িতে অবস্থান করছিলেন। সোহাগী গোপনে প্রতিবেশী লাল মিয়ার ছেলে শহিদুল হকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। দুই বছর ধরে তারা গভীর প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছিলেন। একপর্যায়ে বিষয়টি জানাজানি হলে বিয়ের জন্য শহিদুলকে চাপ দেয় সোহাগী। কিন্তু শহিদুল বিয়ে করতে তালবাহনা করে। পরে সোহাগী নিরুপায় হয়ে বিয়ের দাবি নিয়ে শুক্রবার সন্ধায় শহিদুলের বাড়িতে গিয়ে উঠে।
ফরিদপুর ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান মো. নূর আজম মন্ডল নীরব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, উভয়পক্ষ নিয়ে এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের উপস্থিতিতে বিষয়টি সমাধানের চেষ্টা চলছে। সাদুল্যাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়া লতিফুল ইসলাম জানান, বিষয়টি শুনেছি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ