ঢাকা, শুক্রবার 21 September 2018, ৬ আশ্বিন ১৪২৫, ১০ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

বিশপ পদে এবার নারী

নতুন বার্তা : রক্ষণশীলতা ভেঙে লিঙ্গ সাম্যের দিকে এক কদম এগোল খৃস্টান সমাজ। পরিবর্তনের ধাক্কায় ভেঙে পড়ল যুগ যুগ ধরে চলে আসা পুরুষ আধিপত্য। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে এক বছরের মধ্যে বিশপ হিসাবে দেখা যাবে কোনও মহিলাকে। গত সোমবার এই ঐতিহাসিক আইন গৃহীত হয়েছে ‘চার্চ অব লন্ডন’-এ। জেনারেল সিনোডে ধ্বনি ভোটে প্রস্তাবটি পাশ হয়।
প্রসঙ্গত, এর আগেও একবার এই প্রস্তাব উত্থাপিত হয়েছিল চার্চ অব লন্ডনের সর্বোচ্চ আইন প্রণয়ন শাখা জেনারেল সিনোডে। কিন্তু ছ’ভোটের ব্যবধানে প্রস্তাবটি খারিজ হয়ে গিয়েছিল।
১৯৯৪ সালে যাজক হিসাবে প্রথমবার মহিলাকে মনোনীত করা হয়েছিল। কিন্তু আজ পর্যন্ত চার্চের শীর্ষ পদে কোনো মহিলাকে দেখা যায়নি। আইন বদলের ফলে খুব শীঘ্রই সেই ভূমিকায় দেখা যাবে নারী শক্তিকে। এই পদক্ষেপ চার্চে নয়া পথ সৃষ্টি করবে বলে অভিমত ক্যান্টাবেরির আর্চবিশপ।
যদিও, মহিলাদের বিশপ পদে নির্বাচনের অধিকার দেয়ার বিরোধিতা এসেছে চার্চ অব লন্ডনের বিভিন্ন অংশ থেকে। এংলিকান শাখা এই প্রস্তাবের বিপক্ষে ভোট দিয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ