ঢাকা, শুক্রবার 21 September 2018, ৬ আশ্বিন ১৪২৫, ১০ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

এক মিনিটেই সম্পন্ন হবে আন্তঃব্যাংক লেনদেন

সংগ্রাম ডেস্ক: ব্যাংকিং সেবার মান উন্নয়নে আরটিজিএস প্রযুক্তি চালুর উদ্যোগ নিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এর ফলে এক মিনিটেই সম্পন্ন করা যাবে আন্তঃব্যাংকিং লেনদেন।

আন্তঃব্যাংক লেনদেন দ্রুত ও ঝুঁকিমুক্ত করার লক্ষে রিয়েল টাইম গ্রস সেটেলমেন্ট (আরটিজিএস) নামের প্রযুিক্তগত সেবা বাস্তবায়নের উদ্যোগ নিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের আর্থিক সহায়তায় রেমিট্যান্স ও পরিশোধ পদ্ধতি অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় আরটিজিএস বাস্তবায়ন করা হবে। দেশে এই সেবা সংযোজন হলে মাত্র এক মিনিটের ব্যবধানেই আন্তঃব্যাংক লেনদেন সম্পন্ন করা যাবে।

আরটিজিএস চালু করতে বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ ব্যাংক সুইডেন ভিত্তিক সিএমএ স্মল সিস্টেম এবি নামের একটি কোম্পানির সাথে চুক্তি স্বাক্ষর করেছে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের আরটিজিএস প্রকল্প পরিচালক শুভংকর শাহা ও সিএমএ স্মল সিস্টেম এবি প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ্যালেক্স নাজারভ চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন। কেন্দ্রিয় ব্যাংকের জাহাঙ্গীর আলম কনফারেন্স হলে চুক্তি অনুষ্ঠানে গভর্নর ড. আতিউর রহমান উপস্থিত ছিলেন।

চুক্তি অনুযায়ী ২০১৫ সালের এপ্রিল মাসের মধ্যে আরটিজিএস বাস্তবায়নের কাজ শুরু হবে। আগামী জুলাইয়ের মধ্যে পরীক্ষামূলক এটি চালু হবে। আর আনুষ্ঠানিকভাবে এর সুবিধা পাওয়া যাবে ২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর মাসে।
এ সময় গভর্নর বলেন, আরটিজিএস ব্যবস্থা বাস্তবায়ন হলে দেশে আন্তঃব্য্ংক লেনদেনে নতুন মাত্রা সংযোজিত হবে, এর মাধ্যমে ঝুকিঁ ভিত্তিক লেনদেন কমবে এবং গ্রাহকদের সর্বোত্তম সেবা দেওয়া সম্ভব হবে। স্থানীয় মুদ্রায় লেনদেনের পাশাপাশি এ ব্যবস্থায় দেশের অভ্যন্তরে বৈদেশিক মুদ্রার লেনদেনসমূহ সম্পন্ন করা যাবে।
২০১৫ সালের সেপ্টেম্বর নাগাদ এ ব্যবস্থা গ্রাহকদের জন্য উন্মুক্ত করা যাবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণ করতে তিনি তফসিলি ব্যাংকগুলোর প্রধান নির্বাহীদের নির্দেশনা প্রদান করেন।
গভর্নর বলেন, সরকারি ব্যাংকের জন্য এক রকম সুপারভিশন, বেসরকারি ব্যাংকের জন্য অন্যরকম সুপারভিশন, বিদেশী ব্য্যাংকের জন্য আর এক রকম সুপারভিশন করা হবে না। সবার জন্যই একই নিয়ম, একই নিয়ন্ত্রণ, একই পেমেন্ট সিস্টেম, একই সুপারভিশন ও একই পদ্ধতি অনুসরণ করবে কেন্দ্রিয় ব্যাংক। আর ক্ষেত্রে অঅরটিজিএস ব্যবস্থা কার্যকর ভূমিকা রাখবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন।
তিনি বলেন, ডিজিটালাইজেশন একটি চলমান প্রক্রিয়া। এখানে প্রতিনিয়ত আপডেট থাকতে হয়। আমরা সিএমএ দ্বিতীয় পদক্ষেপ নিবো। গত কয়েক বছরে বাংলাদেশে পেমেন্ট সিস্টেমে বড় ধরণের বিপ্লব ঘটে গেছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।
সূত্র: বাসস

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ