ঢাকা, শনিবার 17 November 2018, ৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে রোববার মুখোমুখি বাংলাদেশ-জিম্বাবুয়ে

চট্টগ্রাম অফিস : চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে রোববার মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও সফরকারী জিম্বাবুয়ে দল দুটি। শিশিরের কারণে ম্যাচের সময়েও কিছুটা পরিবর্তন এসেছে। দেড়টার পরিবর্তে ম্যাচটি শুরু হবে দুপুর সাড়ে ১২টায়। আর এটি সরাসরি সম্প্রচার করবে বেসরাকারী স্যাটেলাইট টেলিভিশন চ্যানেল গাজী টেলিভিশন। এই সিরিজের শুরু থেকেই শিশিরকে ধরা হচ্ছে প্রধান নিয়ামক হিসেবে।  শীতের মৌসুমে দিবারাত্রির ম্যাচ বিধায় বেশী গুরুত্ব পাচ্ছে শিশির। যে কারণে ম্যাচ জয়ের জন্য টস জেতাকে গুরুত্বপূর্ণ ভাবা হচ্ছে। যদিও শুক্রবারের ম্যাচে এর প্রমাণ খুব একটা পাওয়া যায়নি। শিশিরই যদি প্রধান নিয়ামক হতো তাহলে পরে বোলিং করে সফরকারী জিম্বাবুয়েকে ৪২.১ ওভারে ১৯৪ রানে অল আউট করা হয়তো সম্ভব হতোনা। বাংলাদেশ ম্যাচ জিতেছে অধিনায়ক মাশরাফি টসে হারার পরও। বাস্তবতা হচ্ছে, পরে বল করলেও বাংলাদেশি বোলারদের ওপর শিশিরের প্রভাব খুব বেশি দেখা যায়নি। নিয়মিত বিরতিতে জিম্বাবুয়ের উইকেট নেওয়া, বড় জুটি হতে না দেওয় বলতে গেলে সবকিছুতেই সফল টাইগাররা। এবারের সিরিজের বড় সফলতা হচ্ছে সাকিব আল হাসানের একের পর এক নজর কাড়া পারফর্মেন্স। যদিও দুইবার বড় দুটি রেকর্ড ফস্কে গেছে সাকিবের হাত থেকে। টেস্ট ক্রিকেটে ২৫০ রান ও ২০ উইকেট সংগ্রহ করে অসাধারণ একটি মাইলফলকে পৌছার সুযোগ সৃষ্টি হলেও রানের কোটা পুরণ হলেও  পুরণ করতে পারেনি উইকেটের কোটা। এক ম্যাচে সেঞ্চুরি সহ ৫ উইকেট সংগ্রহের মাধ্যমে বিশ্ব ক্রিকেটের বরেণ্য তিন জনের একজন হওয়ার সুযোগটি অল্পের জন্য হাতছাড়া হয়ে গেছে সাকিবের। সেঞ্চুরি পুর্ণ করার পর ৪ উইকেট সংগ্রহ করেই সন্তুষ্ঠ থাকতে হয়েছে সাকিবকে। তাই ওয়েস্ট ইন্ডিজ কিংবদন্তী ভিভ রিচার্ডস ও ইংল্যান্ডের অল রাউন্ডার পল কলিংউডের পাশে তৃতীয় ব্যক্তির আসনটি অলংকৃত করতে পারেননি সাকিব। চেষ্টার ত্রুটি ছিলনা অধিনায়ক মাশরাফির। শেষ দিকে চরম আক্রমণাত্মক ফিল্ডিং সাজিয়েও সেই মাইলফলকটায় পৌছে দিতে পারেননি বাংলাদেশী আইকন সাকিবকে। তবে এক ম্যাচে সেঞ্চুরি ও চার উইকেট নেওয়া ক্রিকেটারদের ক্লাবের ১২তম সদস্য হিসেবে নাম লিখিয়েছেন বাংলাদেশের অলরাউন্ডার।এই মুহুর্তে বাংলাদেশ শিবিরের সবচেয়ে বড় সফলতা হচ্ছে দলবদ্ধ পারফর্মেন্স। টাইগারদের কাছে তাই জিম্বাবুয়ে হেরেছে ৮৭ রানে। ২০১৩ সালের ৩ নভেম্বর ফতুল্লায় নিউজিল্যান্ডকে হারানোর পর গত এক বছরে ওয়ানডেতে জয়ের মুখ দেখেনি বাংলাদেশ। তাই এই  জয়টিই এ বছরের প্রথম জয়, যার মুল ভুমিকায় ছিলেন সাকিব।  আগে থেকেই ধারাবাহিকতায় মোমিনুল। যদিও সিরিজের প্রথম ওডিআই ম্যাচে খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি লোকাল হিরো। তামিম তারপরও বদলে যাওয়া তামিম টেস্টের মত ঘরের মাটিতেও কিছু একটা দেখাবেন এমন আশা নিয়েই মুখিয়ে আছে বন্দর নগরীর দর্শকরা। টেস্টে মুশফিকুরের ব্যাট কিছুটা গোমড়া মুখে থাকলেও ওডিআই ম্যাচে এসে হাসতে শুরু করেছে। তাই অধিনায়ক মাশরাফির ভাষ্য অনুযায়ী চট্টগ্রামের দুটি ম্যাচে যদি জয় নিয়ে ঢাকায় ফিরতে পারে তাহলে মিরপুরে গিয়ে হোয়াইট ওয়াশের লক্ষ্য অর্জিত হবে টাইগাররাদের। গতকাল  অবশ্য বাংলাদশে ও জিম্বাবুয়ে কোন দলই ম্যাচ পুর্ব অনুশীলনের কোন সুচী রাখেনি। কেউ যদি কোন অনুশীলন করতে চায় তবে সেটি হবে ঐচ্ছিক। এর বাইরে হোটেলেই সুইমিং ও জিম করে খেলোয়াড়রা দিনটি কাটিয়ে দেবে বলে বোর্ড সংশ্লিষ্ট একটি সুত্র বাসসকে জানিয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ