ঢাকা, মঙ্গলবার 19 February 2019, ৭ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৩ জমাদিউস সানি ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

নিউইয়র্কে সড়ক দূর্ঘটনায় প্রান গেল দুই বাংলাদেশির

যুক্তরাষ্ট্রের নিউ ইয়র্কে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় এক শিক্ষার্থীসহ দুই বাংলাদেশি নিহত হয়েছে।
গত ২০ ও ২৪ নভেম্বর দুর্ঘটনা দুটি ঘটে। এরমধ্যে একটি দূর্ঘটনার জন্য দায়ী প্রাইভেট কারের চালককে আটক করেছে স্থানীয় পুলিশ। আটক চালকের নাম মিসেস লীন (৭৮)।    
নিহতরা হলেন, মোহাম্মদ হক ওরফে কচি (৩৫) ও নাঈম উদ্দিন অন্তু (১৪)। দুই জনই ব্রুকলিনের বাসিন্দা ছিলেন।
নিহতদের মধ্যে কচির লাশ তার গ্রামের বাড়ি নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের উদ্দেশ্যে পাঠানো হয়েছে। কচির বাবা ওবায়দুল হক যুক্তরাষ্ট্রের বৃহত্তর নোয়াখালী সমিতির সাবেক সভাপতি, বর্তমানে স্ত্রীসহ কোম্পানীগঞ্জে তিনি থাকেন।
মোহাম্মদ সালাহউদ্দিনের ছেলে অন্তুকে নিউইয়র্কের ওয়াশিংটন মেমোরিয়াল গোরস্তানে দাফন করা হয়েছে।
ব্রুকলিন টেকের নবম গ্রেডের ছাত্র অন্তু ব্রুকলিনে পরিবারের সঙ্গেই থাকতেন। তাদের দেশের বাড়ি নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার চৌমুহনী পৌরসভার নাজিরপুরে। 
নিহতের স্বজনরা জানান, ২৪ নভেম্বর স্থানীয় সময় ভোর সোয়া ৩টার দিকে ব্রঙ্কসের মেজর ডিগ্যান এক্সপ্রেসওয়েতে গাড়ির নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে একটি গাছে ধাক্কা খেয়ে ঘটনাস্থলেই কচির মৃত্যু হয়।
এর আগে ২০ নভেম্বর স্থানীয় সময় বিকেল ৫টার দিকে স্কুল থেকে বাসায় ফেরার পথে দ্রুতগামী প্রাইভেটকার অন্তুকে ধাক্কা দিলে সেখানেই তার মৃত্যু হয়।
ব্রুকলীনে সবচেয়ে বড় মসজিদ বাংলাদেশ মুসলিম সেন্টারে অন্তুর জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ