ঢাকা, শুক্রবার 21 September 2018, ৬ আশ্বিন ১৪২৫, ১০ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ইসরাইলি প্রেসিডেন্ট-প্রধানমন্ত্রীর দ্বন্দ্ব চরমে

রয়টার্স/জেরুজালেম পোস্ট: ইসরাইলকে ‘ইহুদিবাদী রাষ্ট্র’ ঘোষণা নিয়ে মুখোমুখি অবস্থান নিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রী। এ দ্বন্দ্বের জের ধরে দেশটিতে আগাম নির্বাচনের ডাক দেয়া হতে পারে।

বিতর্কিত ওই আইনটি নিয়ে ইসরাইলি প্রেসিডেন্ট রিউভেন রিভলিন ও প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু গত মঙ্গলবার প্রকাশ্য বিবাদে জড়িয়ে পড়েন। এরফলে নেতানিয়াহুর জোট সরকারে ভাঙন দেখা দিতে পারে।

আগাম নির্বাচনেরও বিরোধীতা করেছেন রিভলিন। তবে আগাম নির্বাচন হলে কে পরবর্তীতে সরকার গঠন করার ডাক পাবেন তা রিভলিনই নির্ধারণ করবেন, যদিও অন্যান্য ক্ষেত্রে তার পদটি মূলত আলঙ্কারিক।

 

যুক্তরাষ্ট্রসহ বিভিন্ন দেশের সমালোচনার মধ্যেই রবিবার ইসরাইলের মন্ত্রিসভা ইসরাইলকে ‘ইহুদিবাদী রাষ্ট্র’ ঘোষণার আইনে সম্মত দিয়েছে।

তবে প্রেসিডেন্ট রিভলিন এই বর্ণবাদী আইনের কড়া সমালোচনা করেছেন।

ফিলিস্তিনের সাথে ইসরাইলে সংঘাতের মধ্যেই নেতানিয়াহু এ আইনটি পাসের উদ্যোগ নিলেন।

প্রেসিডেন্ট রিভলিন বলছেন, ইসরাইলকে ইহুদি রাষ্ট্র ঘোষণা দেশটির প্রতিষ্ঠাতা জনকদের স্বপ্নের বিপরীত।

ইসরাইলের স্বাধীনতার ঘোষণার প্রণেতারা যথেষ্ট প্রজ্ঞার সাথেই জোর দিয়েছিলেন যে নির্বাসিত ইহুদিদের যে অনুভূতি হয়েছিল ঠিক একই অনুভূতি যেন ইসরাইলের আরব সম্প্রদায় ও অন্যান্য গোষ্ঠীর না হয়, বলেন রিভলিন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ