ঢাকা, সোমবার 16 September 2019, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ মহররম ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ একটি ‘খ্রিস্টান সংস্থা’- এরদোগান

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তৈয়ব এরদোগান বলেছেন, জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ একটি ‘খ্রিস্টান সংস্থা’। এখানে মুসলমানদের কোনো প্রতিনিধিত্ব নেই। নরওয়ের নোবেল পুরস্কার কমিটিরও সমলোচনা করেছেন তিনি।
গতকাল বৃহস্পতিবার এক অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, ‘জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ শুধু খ্রিস্টানদের ক্লাব। এখানে কোনো মুসলিম রাষ্ট্র আছে কী? নেই।’
‘পুরো বিশ্ব এই পাঁচটি দেশের (নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য) মুখের কথার দিকে তাকিয়ে থাকে। যদি তাদের একটি দেশ ভেটো দেয় তবে বিল পাস বাতিল হয়ে যায়।’
নোবেল কমিটিকে পক্ষপাতদুষ্ট আখ্যায়িত করে এরদোগান বলেন, তারা তুরস্কের বিরুদ্ধে বিশেষভাবে কাজ করে।
এখন পর্যন্ত একজনমাত্র তুর্কি নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন। ২০০৬ সালে সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার পান তুর্কি লেখক অরহান পামুক।
তবে মালালা ইউসুফজাই, মিসরের প্রেসিডেন্ট আনোয়ার সাদাত, ইয়াসির আরাফাত ও ড. মুহাম্মদ ইউনূস শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পেয়েছেন। কিন্তু এ নিয়ে বিতর্ক আছে।
তুর্কি প্রেসিডেন্ট তার ভাষণে তার প্রাসাদের সমালোচনাকারীদেরও ভর্ৎসনা করেন।
একে সারে (শ্বেত প্রাসাদ) নামের এই প্রাসাদটি বিশ্বের বৃহত্তম রাজপ্রাসাদ হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে। ৬১.৫ কোটি ডলার ব্যয়ে নির্মিত প্রাসাদে ১০০০ কক্ষ রয়েছে।
এরদোগান বলেন, ‘এটা এরদোগানের প্রাসাদ নয়…এটা তুর্কি জাতির প্রাসাদ।’
সূত্র: টুডে’স জামান

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ