ঢাকা, রোববার 23 September 2018, ৮ আশ্বিন ১৪২৫, ১২ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

কুষ্টিয়ার মিরপুরে বন্দুকযুদ্ধে পূর্ববাংলা কমিউিনিষ্ট পার্টির আঞ্চলিক নেতা এনামূল হক নিহত

কুষ্টিয়া সংবাদদাতা : কুষ্টিয়ার মিরপুরে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে চরমপন্থী সংগঠন পূর্ববাংলা কমিউনিষ্ট পার্টি (এমএল লাল পতাকা)’র আঞ্চলিক নেতা এনামূল হক (৩৫) নিহত হয়েছে। আজ রোববার ভোর ৪টার দিকে মিরপুর উপজেলার ভাঙা বটতলায় জনৈক শহিদুলের ইটভাটার নিকটে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র ও গুলি উদ্ধার করেছে।
মিরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী জালাল উদ্দিন জানান, ভোর ৪টার দিকে কতিপয় চরমপন্থীরা শহিদুলের ইটভাটায় চাঁদা নিতে আসে। এ খবরে মিরপুর থানা ও জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি যৌথ দল আগে থেকেই সেখানে ওৎ পেতে ছিল। সাত আট জন চরমপন্থীরা সেখানে পৌছালে পুলিশ তাদেরকে ঘিরে নেয়। উপস্থিতি টের পেয়ে এসময় সন্ত্রাসীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। আধাঘন্টাব্যাপী এ বন্দুকযুদ্ধের এক পর্যায়ে চরমপন্থীরা পিছু হটে পালিয়ে যায়। পুলিশ ঘটনাস্থল তল্লাশী করে গুলিবিদ্ধ এনামুলকে ও একটি সার্টারগান, চার রাউন্ড বন্দুকের গুলি, পাচ রাউন্ড খোসা উদ্ধার করে। পরে হাসপাতালে নিলে ডাক্তার এনামূল হককে মৃত ঘোষনা করে। এ ঘটনায় ডিবি পুলিশের এসআই মাসুদসহ দুই পুলিশ সদস্য আহত হয়েছে।
কুষ্টিয়া গোয়েন্দা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) পারভেজ ইসলাম জানান, নিহত চরমপন্থী নেতা এনামূল হক মিরপুরের মালিহাদ ইউনিয়নের আসাননগরের রবিউল ইসলামের ছেলে।   তার বিরুদ্ধে কুষ্টিয়া, মেহেরপুর, চুয়াডাঙ্গা ও আলমডাঙ্গার বিভিন্ন থানায় অন্তত ৭টি হত্যা সহ মোট ২৪ মামলা রয়েছে। এর মধ্যে দুটি মামলায় সে ২৪ বছরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামী ছিল।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ