ঢাকা, বৃহস্পতিবার 20 September 2018, ৫ আশ্বিন ১৪২৫, ৯ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

বেনাপোলে ৮ নারী-পুরুষ উদ্ধার, ১০ জনের নামে পাচার মামলা

বেনাপোল সংবাদদাতা: বেনাপোল পোর্ট থানার পুটখালী সীমান্ত পথে ভারতে পাচারের সময় রোববার রাতে ৮ নারী-পুরুষকে উদ্ধার করেছে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) সদস্যরা।
পাচারের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে এক নারীকে আটক এবং আরো ৯ জনকে আসামী করে বেনাপোল পোর্ট থানায় একটি পাচার মামলা করেছে বিজিবি। 
উদ্ধারকৃত নারী-পুরুষরা হচ্ছেন, সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার মির্জাপুর গ্রামের খলিলের মেয়ে খাদিজা (১৭), ওমর গাজির মেয়ে রোজিনা (১৯), জাহাঙ্গীর আলমের মেয়ে খাদিজা (২০) ও পারভিন (১৮), লোকমানের ছেলে সামসুর রহমান (২০), হারুনের ছেলে আসরাফ (১৮), আব্দুর সবুরের ছেলে তুহিন (১৯) ও জব্বারের ছেলে সামসুর (১৭)।
বিজিবি জানায়, উদ্ধারকৃত নারী-পুরুষদের পাচারের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে সাতক্ষীরার কলারোয়া উপজেলার রামকৃষ্ণপুর গ্রামের ইব্রাহীমের স্ত্রী পাইরী বেগমকে (২২) বেনাপোলের পুটখালী থেকে আটক করা হয়েছে এবং তার সহযোগী পালাতক আরো ৮ জনকে আসামী করে বেনাপোল পোর্ট থানায় একটি পাচার মামলা হয়েছে।
আসামীরা হচ্ছে বেনাপোলের পুটখালী এলাকার আতিয়ারের ছেলে ইব্রাহিম (৪২), বিল্লালের ছেলে সুজন (৩৫), নূরমোহাম্মদের ছেলে কালোমনি (৪০), গোলামের ছেলে হাবিবুর (২৫), রবিউলের ছেলে বাদল (৩৪), সামসুল কসাইয়ের ছেলে শুকজান (৩০), গহর আলীর ছেলে ছালাম (৩২), স্বপনের ছেলে সুজন (৩৩) ও কলারোয়া উপজেলার মির্জাপুর গ্রামের খোদা বক্সের ছেলে রেজাউল(৩৬)।
পুটখালী বিজিবি ক্যাম্পের ল্যান্স নায়েক আনোয়ার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান উদ্ধার হওয়া নারী-পুরুষ সহ পাচারকারী ওই নারীকে পোর্ট থানায় সোপর্দ করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ