ঢাকা, বৃহস্পতিবার 11 December 2014 ২৭ অগ্রহায়ন ১৪২১, ১৭ সফর ১৪৩৬ হিজরী
Online Edition

বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনা হতাহত ১৬

বান্দরবান সংবাদদাতা: বান্দরবানে সড়ক দুর্ঘটনায় মো. কবির হোসেন (৩০) নামে এক পর্যটক নিহত হয়েছেন এবং ১২ জন আহত হয়েছেন।
রোববার রাতে বান্দরবান সদরের শৈলপ্রপাত এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। মো. কবির হোসেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের গুলশান বনানী টিএসও’র কড়াইল টিএন্ডটি কলোনির বাসিন্দা এবং তিনি মো. আহাদ হোসেনের ছেলে। এসময় আহত পর্যটকদের মধ্যে যাদের নাম জানা গেছে তারা হলেন- জিহাদুল ইসলাম (৩০), জুবায়ের (২৮), বিল্লাল (৩১), রানা (২১), আকতার (২৫) ও সুমন (২৯)।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, পর্যটকবাহী একটি মাইক্রো নীলগিরি হতে বান্দরবান শহরে ফিরছিল। এসময় শৈলপ্রপাত এলাকায় মাইক্রোবাসটির চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে গেলে ঘটনাস্থলেই কবির হোসেন নিহত হন এবং ১২ জন আহত হন। তারা সবাই ঢাকার বনানী এলাকার বাসিন্দা। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা আহতদের উদ্ধার করে বান্দরবান সদর হাসপাতালে ভর্তি করান।
বান্দরবান সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ইমতিয়াজ আহমেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া
গত সোমবার ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে সড়ক দুর্ঘটনায় এক সিএনজি চালক নিহত হয়েছে। জানা যায়, দুপুরে উপজেলা সদর টেম্পু স্ট্যান্ড থেকে যাত্রীবাহী সিএনজি চালিত অটোরিকশা রতনপুর যাচ্ছিল। রছুলাবাদ ইউনিয়নের দাল্লা গ্রামে সিএনজিটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খাদে পড়ে গেলে ঘটনাস্থলে চালক বিল্লাল মিয়া (৩০)  নিহত হয় ও দুই যাত্রী আহত হয়। সে উপজেলার রছুলাবাদ গ্রামের সব্দর মিয়ার ছেলে।
দামুড়হুদা (চুয়াডাঙ্গা)
চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় সাবেক ব্যাংকার আবু সাঈদ (৬৫) মর্মান্তিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছেন। গত রোববার সকালে আলমডাঙ্গা শহর থেকে তার মেয়ে ডা. শারমিন আক্তার অনুপাকে হারদী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রেখে বাড়ি ফেরার পথে লালব্রিজ মোড়ে পৌঁছুলে চুয়াডাঙ্গাগামী একটি যাত্রীবাহী বাস তাকে চাপা দেয়। মুমূর্ষু অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে ঢাকায় নিয়ে যাওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। তিনি আলমডাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডা. হাদী জিয়াউদ্দীন আহমেদ সাঈদের শ্বশুর।
জানা গেছে, আলমডাঙ্গা উপজেলার যাদবপুর গ্রামের হাজি সোলায়মান হকের ছেলে আবু সাঈদ (৬৫) ছিলেন সাবেক ব্যাংকার। সকালে আলমডাঙ্গা শহরের কলেজপাড়াস্থ বাড়ি থেকে মোটরসাইকেলযোগে মেয়ে ডা. শারমিন আক্তার অনুপাকে হারদী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পৌঁছে দিয়ে আলমডাঙ্গা শহরে ফেরার পথে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে শহরের লালব্রিজ মোড়ে পৌঁছুলে কুষ্টিয়ার দিক থেকে ছুটে যাওয়া চুয়াডাঙ্গাগামী যাত্রীবাহী বাস বিবিএস এক্সক্লুসিভ (কুষ্টিয়া-১১-০০০৫) তাকে সজোরে ধাক্কা দিলে তার মাথা থেতলে যায়। তাকে সংজ্ঞাহীন অবস্থায় উদ্ধার করে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। এরপর দ্রুত অ্যাম্বুলেন্সযোগে ঢাকায় নেয়ার পথে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। ঘাতক বাসটিকে আলমডাঙ্গা থানা পুলিশ উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নিয়েছে। বাসের ড্রাইভার পলাতক রয়েছে।
সাভার
আশুলিয়ার ডিইপিজেড এলাকায় যাত্রীবাহি বাসের চাপায় মারা গেছে এক গার্মেন্টস শ্রমিক। এসময় উত্তেজিত শ্রমিকরা একটি যাত্রীবাহি বাসে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয় ও কয়েকটি বাস ভাঙচুর করে।পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।
পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখাতে ডিইপিজেড এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ ও আনসার মোতায়েন করা হয়েছে।
পুলিশ জানায়, সোমবার সকালে আশুলিয়ার নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের ডিইপিজেড এলাকায় সড়ক পারাপারের সময় যাত্রীবাহি বাসের চাপায় ইয়াং ওয়ান পোশাক কারখানার এক শ্রমিক নিহত হয়। ঘটনা  স্থলে যে শ্রমিক মারা গেছে তার নাম মুক্তা (৩৪) সে দেলোয়ার হোসেন তারা মাদারীপুর সদর থানার দুধখালী গ্রামের বাসিন্দা বলে জানিয়েছে পুলিশ।
এসময় উত্তেজিত শ্রমিকরা যাত্রীবাহি বাসটিতে আগুন ধরিয়ে দেয় ও কয়েকটি বাস ভাঙচুর করে। খবর পেয়ে আশুলিয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে শ্রমিকদের সড়ক থেকে সরিয়ে দেয়। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে এলাকাটিতে রায়ট কার, জলকামানসহ বিপুল সংখ্যক পুলিশ ও আনসার মোতায়েন করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ