ঢাকা, বৃহস্পতিবার 11 December 2014 ২৭ অগ্রহায়ন ১৪২১, ১৭ সফর ১৪৩৬ হিজরী
Online Edition

প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগে জয় পেয়েছে মোহামেডান রূপগঞ্জ ও শেখ জামাল

স্পোর্টস রিপোর্টার : ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগে জয় পেয়েছে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব, লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্রিকেট ক্লাব। মাশরাফি বিন মুর্তজাকে ফিরে পেয়ে যেন বদলে গেছে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেড। পারটেক্স স্পোর্টিং ক্লাবকে ৭ উইকেটে হারিয়ে সুপার সিক্সের ওঠার সম্ভাবনা আরও উজ্জ্বল হয়েছে মোহামেডানের। মাশরাফি বিন মুর্তজাকে ফিরে পেয়ে যেন বদলে গেছে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিমিটেডের। কুয়াশার কারণে ম্যাচের দৈর্ঘ্য নেমে আসে ৩৬ ওভারে। বুধবার বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৮ উইকেটে ১৭৫ রান করে পারটেক্স। সর্বোচ্চ ৮২ রান করেন রাজিন সালেহ। ২৭ রানে ৪ উইকেট নিয়ে মোহামেডানের সেরা বোলার আলাউদ্দিন বাবু। মোহামেডানের অধিনায়ক মাশরাফি ৩ উইকেট নেন ৩০ রানে। জবাবে ৩৩ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় মোহামেডান। ইজাজ আহমেদের (৫৯) সঙ্গে তানভীর হায়দারের (৫৬) ৯৪ রানের উদ্বোধনী জুটি মোহামেডানকে সহজ জয়ের পথে নিয়ে যায়। দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যানের বিদায়ের পর মোহাম্মদ মিঠুন দ্রুত ফিরলেও নাঈম ইসলাম (অপরাজিত ৩১) ও রহমত শাহ (অপরাজিত ৮) মোহামেডানকে সহজ জয় এনে দেয়। সুপার সিক্সের শেষ তিনটি স্থানের জন্য লড়াইয়ে আছে মোহামেডান, প্রাইম দোলেশ্বর, লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ ও ভিক্টোরিয়া। প্রথম তিনটি দলের পয়েন্ট ১২, এক ম্যাচ কম খেলা ভিক্টোরিয়ার পয়েন্ট ১০। সাকিব আল হাসানের অলরাউন্ড নৈপুণ্যে জয়ে ফিরেছে লিজেন্ডস অব রূপগঞ্জ। প্রাইম দোলেশ্বর স্পোর্টিং ক্লাবকে হারিয়েছে তারা। টানা চার ম্যাচ পর পাওয়া ২৮ রানের এই জয়ে সুপার সিক্সের সম্ভাবনা উজ্জ্বল হয়েছে রূপগঞ্জের। সুপার সিক্সের শেষ তিনটি স্থানের জন্য লড়াইয়ে আছে মোহামেডান, প্রাইম দোলেশ্বর, রূপগঞ্জ ও ভিক্টোরিয়া। প্রথম তিনটি দলের পয়েন্ট ১২, এক ম্যাচ কম খেলা ভিক্টোরিয়ার পয়েন্ট ১০। বুধবার কুয়াশার জন্য ম্যাচের দৈর্ঘ্য নেমে আসে ৩১ ওভারে। ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে ৩০ ওভার ১ বলে ২১১ রানে অলআউট হয়ে যায় রূপগঞ্জ। সর্বোচ্চ ৪৭ রান করে আশহার জাইদি। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৪৫ রান আসে তামিম ইকবালের ব্যাট থেকে। এছাড়া নাজমুল মিলন ৩৫, সাকিব ৩০ রান করেন। প্রাইম দোলেশ্বরের ইলিয়াস সানি ২৯ রানে ৩ উইকেট নেন। জবাবে ৩০ ওভারে ১৮৩ রানে অলআউট হয়ে যায় প্রাইম দোলেশ্বর। সর্বোচ্চ ৫৩ রান করেন ডাভিড মালান। এছাড়া মুশফিকুর রহিম ৩২, মিজানুর রহমান ২৬ রান করেন। ম্যাচ সেরা সাকিব ২৭ রানে নেন ৪ উইকেট। এছাড়া মোহাম্মদ শহীদ ৩ উইকেট নেন ২৮ রানে। সোহাগ গাজীর দুর্দান্ত বোলিংয়ে জয় পেয়েছে শেখ জামাল ধানম-ি ক্রিকেট ক্লাব। ওল্ড ডিওএইচএসকে হারিয়েছে তারা ৬ উইকেটের । মাত্র ২৭ রানে ৫ উইকেট নেন সোহাগ গাজীর । এই জয়ে শেখ জামালের পয়েন্ট আট। অন্য দিকে ওল্ড ডিওএইচএসের এটি টানা দশম পরাজয়। কুয়াশার কারণে ম্যাচের দৈর্ঘ্য নেমে আসে ৪৫ ওভারে। বুধবার মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে ৯ উইকেটে ১৫৫ রান করে ওল্ড ডিওএইচএস। জবাবে ৪২ ওভার ২ বলে ৪ উইকেট হারিয়ে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় শেখ জামাল। লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ৩২ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়ে শেখ জামাল। তবে আরাফাত সানি জুনিয়রের সঙ্গে ১০২ রানের চমৎকার জুটি উপহার দিয়ে দলকে জয়ের দিকে নিয়ে যান মাইশুকুর রহমান। বাকি কাজটুকু সোহাগকে নিয়ে সহজেই সারেন আরাফাত। তিনি ৪৪ ও সোহাগ ১৩ রানে অপরাজিত ছিলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ