ঢাকা, বৃহস্পতিবার 11 December 2014 ২৭ অগ্রহায়ন ১৪২১, ১৭ সফর ১৪৩৬ হিজরী
Online Edition

দেশে মানবাধিকার লংঘন চরম আকার ধারণ করেছে

ফেনী সংবাদদাতা : বিশিষ্ট সাংবাদিক ও কলামিস্ট এরশাদ মজুমদার বলেছেন, ১৬ কোটি মানুষের মধ্যে ১ হাজার লোকও যদি মানবাধিকারের কথা বলতো তাহলে দেশের পরিবর্তন আসতো। বর্তমান সময়ে সকল ক্ষেত্রে মানবাধিকার লংঘন চরম আকার ধারণ করেছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, সরকারি আমলারা রন্ধ্রে রন্ধ্রে দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়ছে। একসময় ছাত্ররাজনীতিতে লাঠি-হকিস্টিক নিয়ে আন্দোলন হলেও বর্তমানে বন্দুক দিয়ে আন্দোলন হয়। মানবাধিকারের কথা বলায় জিয়াউর রহমান ও এরশাদের আমলে আমাকে কয়েকবার জেলে যেতে হয়েছে। গত মঙ্গলবার বিকালে ফেনীতে ‘মানবাধিকার রক্ষায় গণমাধ্যম’ শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।
দৈনিক ফেনীর সময় আয়োজিত পত্রিকার প্রধান কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত গোলটেবিল বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন ফেনী ইউনিভার্সিটির ট্রেজারার প্রফেসর তায়বুল হক। দৈনিক ফেনীর সময় সম্পাদক মোহাম্মদ শাহাদাত হোসেনের সঞ্চালনায় আলোচনায় অংশ নেন ফেনী সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ প্রফেসর উৎপল কান্তি বৈদ্য, উপাধ্যক্ষ প্রফেসর মুহম্মদ মহীউদ্দিন চৌধুরী, এপিপি কাজী বুলবুল আহমদ সোহাগ, ফেনী শহর ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মো. ফারুক হারুন, ফেনী চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সহ-সভাপতি আবদুল আউয়াল সবুজ, ফেনী রিপোর্টার্স ইউনিটির সাবেক সভাপতি ও জনকণ্ঠ-এনটিভি প্রতিনিধি ওছমান হারুন মাহমুদ দুলাল, সুজন ও সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোটের জেলা সভাপতি মাহবুব আলতমাস, শহর ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক ইকবাল আলম, দৈনিক স্টার লাইন সম্পাদক ও বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন ফেনী জেলা সভাপতি জামাল উদ্দিন, আয়কর আইনজীবী ইসমাইল হোসেন সিরাজী, অধিকার-এর ফোকাল পার্সন সাংবাদিক নাজমুল হক শামীম, নারী নেত্রী মর্জিনা আক্তার প্রমুখ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ