ঢাকা, রোববার 18 November 2018, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

নাইজেরিয়ায় ৫৪ সেনাকে ফায়ারিং স্কোয়াডে মৃত্যুদণ্ড

নাইজেরিয়ায় ৫৪ সেনা সদস্যকে ফায়ারিং স্কোয়াডে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন দেশটির একটি সামরিক আদালত। দেশটির সশস্ত্র সংগঠন বোকো হারামের বিরুদ্ধে লড়াই করতে অস্বীকৃতি জানানোর কারণেই তাদের এ দণ্ড দেয়া হয়েছে। 

বিবিসির খবরে বলা হয়, বোকো হারামের দখলকৃত দেশটির উত্তর-পূর্বাঞ্চলের তিনটি শহর পুনরুদ্ধারে গত আগস্টে সেনা অভিযানে যেতে অস্বীকৃতি জানান তারা। এ সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে বিদ্রোহও শুরু করেন। 

সেনাবাহিনীর এক আইনজীবী জানান, ৫৪ জনকে ফায়ার স্কোয়াডে মৃত্যুদণ্ডাদেশ কার্যকর করা হবে শিগগিরই। এ ঘটনায় পাঁচকে বেকসুর খালাস দেওয়া হয়েছে। সেনাদের অভিযোগ, বোকো হারামের সঙ্গে লড়াই করতে তাদের পর্যাপ্ত অস্ত্র ও গোলাবারুদ দেওয়া হয়নি। তাই তারা বোকো হারামের সঙ্গে লড়াইয়ে অস্বীকৃতি জানায়। 

নাইজেরিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলের বিশাল এলাকা নিয়ে আলাদা একটি ইসলামী রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার লক্ষে ২০০৯ সাল থেকে সশস্ত্র সংগ্রাম চালিয়ে আসছে বোকো হারাম। অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া মার্শাল কোর্টে ওই সেনা সদস্যদের বিচার সমাপ্ত হলো বুধবার। যদিও এ আদেশের পর সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে কোনো ধরনের বক্তব্য পাওয়া যায়নি। 

সরকারি প্রতিরক্ষা আইনজীবী ফেমি ফালানা বলেন, নাইজেরিয়ান সেনা কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ করার ষড়যন্ত্রের দায়ে ওই সেনারা দোষী সাব্যস্ত হয়েছেন। তবে দোষী সেনাদের সবাই এ রায় প্রত্যখান করেছেন। একই ধরনের ঘটনায় গত সেপ্টেম্বরে দেশটির ১২ সেনাকে মৃত্যুদণ্ড দেওয়া হয়েছিল।

সূত্র: বিবিসি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ