ঢাকা, রোববার 20 October 2019, ৫ কার্তিক ১৪২৬, ২০ সফর ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

ঝিনাইদহের শৈলকুপায় ট্রাকের ধাক্কায় ৪ টেম্পো আরোহী নিহত

ঝিনাইদহ থেকে শাহনেওয়াজ খান সুমন:
ঝিনাইদহের শৈলকুপায় ট্রাকের ধাক্কায় চার টেম্পো আরোহী নিহত হয়েছেন। এ দুর্ঘটনায় আহত হয়েছেন আরও চার জন। আজ শুক্রবার সকাল ৬টার দিকে ঝিনাইদহ-কুষ্টিয়া সড়কের দুধসর আশ্রয়ন প্রকল্পের সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে। হতাহতরা সবাই পান ব্যবসায়ী। তারা পান কিনতে নিজেদের এলাকা থেকে টেম্পোযোগে ঝিনাইদহের বৈডাঙ্গা বাজারে যাচ্ছিলেন।
নিহতরা হলেন, শৈলকুপা উপজেলার কানাপুকুরিয়া গ্রামের আব্দুল গফুর বিশ্বাসের ছেলে শফি উদ্দীন (৪৫), একই গ্রামের রওশন আলীর ছেলে মজিবর রহমান মন্ডল (৪০), আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে রেজাউল ইসলাম (৩০) ও চরপাড়া গ্রামের ইউসুফ আলীর ছেলে আমিরুল ইসলাম (৩০)। আহতরা হলেন-শ্রীরামপুর গ্রামের মিলন (৩৮), আলমগীর (৪০), নূরুল ইসলাম (৩৫) ও মোমিন হোসেন (৩২)। আহতদের ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তবে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাদের ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তর করা হয়েছে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকালে শৈলকুপা উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের চরপাড়া গ্রাম থেকে আট পান ব্যবসায়ী একটি টেম্পো ভাড়া (ঝিনাইদহ-ফ-১১-০১৬৭) করে ঝিনাইদহের বৈডাঙ্গা পানের হাটে যাচ্ছিলেন। টেম্পোটি দুধসর এলাকায় পৌঁছালে ঝিনাইদহগামী একটি ট্রাক পিছন দিক থেকে ধাক্কা দিয়ে পালিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই চার পান ব্যবসায়ী নিহত ও চারজন আহত হন। দুর্ঘটনায় আহত মোমিন জোয়ার্দ্দার জানান, ট্রাকের চালকের চোখে ঘুম থাকায় তিনি নিয়ন্ত্রন হারিয়ে ফেলেন, এই কারণে দুর্ঘটনা ঘটেছে।
শৈলকুপা থানার ওসি এমএ হাসেম খান জানান, স্থানীয়রা আহতদের উদ্ধার করে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। নিহতদের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। দুর্ঘটনার পর ট্রাক নিয়ে চালক পালিয়ে গেছে। ট্রাকটি আটকের জন্য পুলিশ চেষ্টা চালাচ্ছে। এ ঘটনায় এখনও শৈলকুপা থানায় কোন মামলা হয়নি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ