ঢাকা, শুক্রবার 21 September 2018, ৬ আশ্বিন ১৪২৫, ১০ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ফরিদপুরে গাছের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে বাস খাদে পড়ে নিহত ২৫

ফরিদপুরের ভাঙ্গা উপজেলায় একটি যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে খাদে পড়ে অন্তত ২৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন কমপক্ষে ২০ জন।
বুধবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।
হাইওয়ে পুলিশের এএসপি বেলাল হোসাইন জানান, সোনারতরী পরিবহনের বাসটি রাতে ঢাকা থেকে যাত্রী নিয়ে বরিশালের উদ্দেশ্যে যাচ্ছিল। নিহতদের মধ্যে ২০ জন পুরুষ ও পাঁচ জন নারী। আহত ২৭ জনকে ভাঙ্গা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স এবং ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।
আহত যাত্রীদের বরাত দিয়ে ফরিদপুর ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক শামসুজ্জোহা বলেন, দ্রুত গতিতে থাকা বাসটির চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে সেটি রাস্তার পাশের একটি গাছের সঙ্গে সজোরে ধাক্কা খায়। পরে  বাসটি আরো কয়েকটি গাছের সঙ্গে ধাক্কা খেয়ে কাত হয়ে পড়ে যায়। নিহত ৩ জনের পরিচয় পাওয়া গেছে।
নিহতারা হলেন, ওই বাসের সুপারভাইজার গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরের চাওরা গ্রামের মোহাম্মদ ভূঁইয়ার ছেলে শফিকুল ভূইয়া (২২), পটুয়াখালী মিঠাগঞ্জ এর মধুখালী গ্রামের সেলিম সিকদারের ছেলে শাহীন সিকদার (২০) ও পটুয়াখালী খেপুপাড়ার কুমিরমোড়া গ্রামের আব্দুর সালামের স্ত্রী আসমা বেগম (২৭)।
হাইওয়ে পুলিশ মাদারীপুর অঞ্চলের সহকারি পুলিশ সুপার বেলাল হোসেন জানান, ধারণা করা হচ্ছে বাসের চালক ঘুমিয়ে পড়ায় এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। এতে গুরুতর আঘাত পেয়ে ঘটনাস্থলেই ২৫ যাত্রীর মৃত্যু হয়। আহতদের হাসপাতালে নেয়ার পর দুজনকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসক। দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ভাঙ্গা ও ফরিদপুর ফায়ার সার্ভিস, হাইওয়ে পুলিশ ও জেলা পুলিশ উদ্ধার তৎপরতা চালায়।
বাসে অর্ধশতাধিক যাত্রী ছিলেন বলেও জানান এ পুলিশ কর্মকর্তা।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ