ঢাকা, বুধবার 21 November 2018, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

তুর্কি-মিশর সম্পর্ক পুনঃপ্রতিষ্ঠার আগে মুরসির মুক্তি দাবি এরদোগানের

মিশরের সাথে সম্পর্ক পুনঃপ্রতিষ্ঠার আগে প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ মুরসির মুক্তি দাবি করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেব এরদোগান। একই সাথে মুরসি সমর্থকদের  দেয়া মুত্যুদণ্ডাদেশ তুলে নেয়ারও দাবি করেছেন তিনি।

২০১৩ সালে মিশরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট মুরসিকে ক্ষমতাচ্যুত করেন সাবেক সেনাপ্রধান ও বর্তমান প্রেসিডেন্ট আবদেল ফাত্তাহ আল-সিসি।

মিশরের নিরাপত্তা বাহিনী শতশত মুরসি সমর্থকদের হত্যা করার পাশাপাশি হাজার হাজার সমর্থকদের আটক করে। তিন হাজারের বেশি সমর্থককে মুত্যুদণ্ডাদেশ দেয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার ইরান সফর শেষে দেশে ফিরে বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের এরদোগান বলেন, ‘ মুরসি ৫২ শতাংশ জনগণের ভোটে নির্বাচিত প্রেসিডেন্ট। তাদের (মিশরীয় কর্তৃপক্ষ) উচিত তাকে মুক্তি দেয়া।’

এরদোগানের অফিসের একজন কর্মকর্তাও তার এই বক্তব্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

মুরসি সরকারের বিরুদ্ধে সেনা অভ্যুত্থানের পর সেটাকে ‘অগ্রহণযোগ্য’ বলে মন্তব্য করেছিলেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট।

মিশরের সাথে সম্পর্কের ব্যাপারে প্রশ্ন করা হলে এরাদোগান বলেন, ‘সেখানে ৩ হাজারের বেশি লোককে মুত্যুদণ্ডাদেশ দেয়া হয়েছে। এটা তুলে নিতে হবে।’

সূত্র: ভয়েস অফ আমেরিকা, জেরুজালেম পোস্ট

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ