ঢাকা, শুক্রবার 16 November 2018, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের দুপক্ষে গোলাগুলি

তেজগাঁওয়ে বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি হলে ছাত্রলীগের দুপক্ষে গোলাগুলি হয়েছে। এতে পাঁচজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

জানা গেছে, শনিবার রাত দেড়টার দিকে নিজেদের পক্ষের নবীন শিক্ষার্থীদের শহীদ আজিজ হলে ওঠানো নিয়ে সরকারসমর্থক ছাত্র সংগঠনটির দুটি পক্ষ এই সংঘর্ষে জড়ায়। এ সময় বেশ কয়েক রাউন্ড গুলির শব্দ পাওয়া যায়।

খবর পেয়ে রাত ৩টার দিকে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে বলে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার ওসি মো. সালাউদ্দিন জানান।

বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থী জানান, শহীদ আজিজ হলের আধিপত্য নিয়ে হল শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহাদত হোসেন শিশির ও সাধারণ সম্পাদক নাজমুস সাকিব খানের সমর্থকদের মধ্যে আগে থেকেই বিরোধ চলে আসছিল।

৪১ তম ব্যাচের নবীন শিক্ষার্থীদের নিজেদের দলে টেনে শহীদ আজিজ হলে তোলা নিয়ে রাতে তাদের মধ্যে উত্তেজনা তৈরি হয়।

দুই পক্ষের নেতাকর্মীরা রড, লাঠি, রামদাসহ বিভিন্ন অস্ত্র হাতে মুখোমুখি অবস্থান নিলে হলে শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

ওই শিক্ষার্থী বলেন, “হলের প্রধান ফটক তালাবদ্ধ ছিল। আমি কোনোভাবে বেরিয়ে আসতে পেরেছিলাম। বাইরে দাঁড়িয়ে অন্তত ১০/১২ রাউন্ড গুলির শব্দ শুনেছি।”

শহীদ আজিজ হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাজমুস সাকিব খানকে ফোন করলে তিনি বলেন, “পুলিশ এসেছে। শিক্ষার্থীদের মধ্যে কেউ গুরুতর আহত হয়নি। পুলিশের উপস্থিতিতে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে এসেছে।”

এ ব্যাপারে সভাপতি শাহাদত হোসেন শিশির বলেন, “গতকাল থেকে হল কমিটি বিলুপ্ত হয়ে গেছে। তাই এটি ছাত্রলীগের কোনো ঘটনা না। হলে ছাত্র তোলা নিয়ে সাকিবের ছেলেরা আমাদের উপর হামলা করেছে।”

হল কমিটির শাখা বিলুপ্তির বিষয়ে কেন্দ্রীয়ভাবে কিছু জানা সম্ভব না হলেও’ ‘বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ’ নামে একটি ফেইসবুক পেইজে শনিবার রাতে একটি পোস্টে বলা হয়, “বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ শহীদ আজিজ হল শাখার কমিটি অনির্দিষ্টকালের জন্যে স্থগিত ঘোষণা করা হল।”

তেজগাঁও শিল্পাঞ্চল থানার ওসি মো. সালাউদ্দিন বলেন, বর্তমানে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ