ঢাকা, বুধবার 21 November 2018, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

কেনিয়ায় বাবার বাড়ির আত্মীয়দের সঙ্গে ওবামার নৈশভোজ

প্রেসিডেন্ট হিসেবে পিতার দেশে প্রথম আনুষ্ঠানিক সফরে সৎ দাদী, সৎ বোন ও বাবার পরিবারের অন্যান্য আত্মীয়স্বজনদের সঙ্গে রাতের খাবার খেয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা।

শুক্রবার সন্ধ্যায় ওবামাকে বহনকারী বিমান এয়ার ফোর্স ওয়ান কেনিয়ার রাজধানী নাইরোবিতে অবতরণ করে।
 
বিমানবন্দরে তাকে স্বাগত জানান কেনিয়ার প্রেসিডেন্ট উহুরু কেনিয়াত্তা ও দেশটির অন্যান্য উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।
 
ওবামা আসার কয়েক ঘন্টা আগে থেকেই নাইরোবির প্রধান প্রধান রাস্তাগুলো বন্ধ করে রাস্তাগুলো ফাঁকা করে ফেলে পুলিশ। বিমানবন্দরে নামার পর ওবামাকে খুব দ্রুত রাজধানীর গন্তব্যস্থলে নিয়ে যাওয়া হয়। এ সময় শহরজুড়ে কঠোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়।
 
রাজধানী দিয়ে ওবামার মোটরবহর যাওয়ার সময় রাতের আঁধারে রাস্তার দুপাশে উপস্থিত শত শত উৎসুক লোক উৎফুল্ল চিৎকার দিয়ে তাকে স্বাগত জানায়।  
 
হোটেলে ওবামা তার ‘গ্রানি’ বা দাদির পাশে যেয়ে বসেন। ‘মামা সারাহ’ নামে পরিচিত এই সৎ দাদিই ওবামার বাবাকে শিশু অবস্থায় প্রতিপালন করেছিলেন।
 
হোটেলে ওবামার সৎবোন অউমা ওবামা ও বৃহৎ পরিবারটির অনেক আত্মীয়স্বজনও উপস্থিত ছিলেন। এই হোটেলেরই রেস্তোরাঁর একটি লম্বা টেবিলে সবাই পাশাপাশি বসেন। এখানে স্যুট-টাই পড়া ওবামা খুশির সঙ্গে বন্ধুত্বপূর্ণভাবে সবার সঙ্গে কথা বলেন।  
 
কেনিয়ায় পারিবারিক আত্মীয়দের সাথে সময় কাটানোর পাশাপাশি ওবামা বাণিজ্য ও সন্ত্রাস বিরোধী ইস্যু নিয়ে এক এক সেমিনারে সভাপতিত্ব করবেন।
 
আত্মীয়স্বজনদের সঙ্গে আনন্দে সময় কাটালেও এ যাত্রায় যে গ্রামে ওবামার বাবার করব আছে, সেখানে তিনি যাবেন না বলেই ধারণা করা হচ্ছে।-বিডিনিউজ

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ