ঢাকা, বুধবার 23 October 2019, ৮ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

তানোরে যুবলীগ সম্পাদকের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ

রাজশাহীর তানোর উপজেলায় যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক জোবায়ের হোসেনের বিরুদ্ধে জাল কাগজ তৈরী করে জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে। তার-ই শ্বশুর আব্দুস সাত্তার ডলার শনিবার দুপুরে রাজশাহী প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এ অভিযোগ করেন।

ইতিমধ্যেই জোবায়েরের ছেলেদের বিরুদ্ধে মারপিটের মামলায় থানায় চার্জশিটও হয়েছে। তবে তারা কেউ এখনো গ্রেপ্তার হয়নি।

তানোর উপজেলার মন্ডুমালা পৌরসভার সাদিপুর গ্রামের লিখিত অভিযোগে আব্দুস সাত্তার এবং তার ছোটো ভাই এমদাদুল হক জানান, গত এক বছর ধরে তাদের জামাই জোবায়ের হোসেন বিভিন্নভাবে তাদেরকে হুমকি-ধমকি দিয়ে আসছে। গত এক বছরে জাল কাগজ তৈরি করে ৯০ শতক ভিটেমাটি এবং ২ দশমিক ২২ একর মাঠের জমি দখল করে নিয়েছে।

এদিকে যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক জোবায়ের হোসেনের ছেলে ডলার জমি দখলে বাধা দেয়ায় এমদাদুলের পরিবারের লোকজনকে পিটিয়ে জখম করেছে। এ ঘটনায় ফৌজদারি মামলায় তাদের বিরুদ্ধে চার্জশিটও হয়েছে। আর দেওয়ানি মামলার তদন্তভার পড়েছে তানোরের সহকারী ভূমি কমিশনারের ওপর। কমিশনারের পদটি খালি  থাকায় উপজলো নির্বাহী অফিসার নিজেই বর্তমানে ঘটনাটির তদন্ত করছেন।

তারা আরো অভিযোগ করেন, জোবায়ের বর্তমানে রাজশাহীতে অবস্থান করলেও তার লোকজন দিয়ে জমি দখল করা অব্যাহত রেখেছে। মামলা তুলে নিতে বিভিন্নভাবে বাদিপক্ষকে হুমকি প্রদান করছে। এছাড়া জোবায়েরের বিরুদ্ধে থানায় ধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে। বর্তমানে সে অন্যের স্ত্রী দুই সন্তানের জননীকে নিয়ে রাজশাহী শহরের ডিঙ্গাডোবা এলাকায় বসবাস করছে।

সংবাদ সম্মেলনে এলাকাবাসীর মধ্যে মন্ডুমালা যুবলীগ পৌর কমিটির ৫ নম্বর ওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক সাদিপুর গ্রামের অধিবাসী আবুল কালাম, সেরাজুল ইসলাম, নজরুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

তানোর থানার উপ-পরিদর্শক শহিদুল ইসলাম জানান, ঘটনাটি সিভিল মামলা। সেক্ষেত্রে পুলিশের খুব বেশি কিছু করার নেই। তারপরেও পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে যতটুকু পেরেছে অভিযোগ খতিয়ে দেখেছে। তবে আদালতকেই এর ফয়সালা করতে হবে।

তবে অভিযুক্ত ওই যুবলীগ নেতা জোবায়েরের সাথে ফোনে যোগাযোগ করা হলে সব অভিযোগ অস্বীকার করে তিনি বলেন, যে জমি দখল করেছেন তা তিনি নিজে ক্রয় করেছিলেন। সম্প্রতি তিনি যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে দলের অনেকেই তার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে সুনাম নষ্ট করতে চাচ্ছে।-শীর্ষ নিউজ

তানোরে যুবলীগ সম্পাদকের বিরুদ্ধে জমি দখলের অভিযোগ
শীর্ষ নিউজ, রাজশাহী: রাজশাহীর তানোর উপজেলায় যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক জোবায়ের হোসেনের বিরুদ্ধে জাল কাগজ তৈরী করে জমি দখলের অভিযোগ উঠেছে। তার-ই শ্বশুর আব্দুস সাত্তার ডলার শনিবার দুপুরে রাজশাহী প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এ অভিযোগ করেন।

ইতিমধ্যেই জোবায়েরের ছেলেদের বিরুদ্ধে মারপিটের মামলায় থানায় চার্জশিটও হয়েছে। তবে তারা কেউ এখনো গ্রেপ্তার হয়নি।

তানোর উপজেলার মন্ডুমালা পৌরসভার সাদিপুর গ্রামের লিখিত অভিযোগে আব্দুস সাত্তার এবং তার ছোটো ভাই এমদাদুল হক জানান, গত এক বছর ধরে তাদের জামাই জোবায়ের হোসেন বিভিন্নভাবে তাদেরকে হুমকি-ধমকি দিয়ে আসছে। গত এক বছরে জাল কাগজ তৈরি করে ৯০ শতক ভিটেমাটি এবং ২ দশমিক ২২ একর মাঠের জমি দখল করে নিয়েছে।

এদিকে যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক জোবায়ের হোসেনের ছেলে ডলার জমি দখলে বাধা দেয়ায় এমদাদুলের পরিবারের লোকজনকে পিটিয়ে জখম করেছে। এ ঘটনায় ফৌজদারি মামলায় তাদের বিরুদ্ধে চার্জশিটও হয়েছে। আর দেওয়ানি মামলার তদন্তভার পড়েছে তানোরের সহকারী ভূমি কমিশনারের ওপর। কমিশনারের পদটি খালি  থাকায় উপজলো নির্বাহী অফিসার নিজেই বর্তমানে ঘটনাটির তদন্ত করছেন।

তারা আরো অভিযোগ করেন, জোবায়ের বর্তমানে রাজশাহীতে অবস্থান করলেও তার লোকজন দিয়ে জমি দখল করা অব্যাহত রেখেছে। মামলা তুলে নিতে বিভিন্নভাবে বাদিপক্ষকে হুমকি প্রদান করছে। এছাড়া জোবায়েরের বিরুদ্ধে থানায় ধর্ষণের অভিযোগ রয়েছে। বর্তমানে সে অন্যের স্ত্রী দুই সন্তানের জননীকে নিয়ে রাজশাহী শহরের ডিঙ্গাডোবা এলাকায় বসবাস করছে।

সংবাদ সম্মেলনে এলাকাবাসীর মধ্যে মন্ডুমালা যুবলীগ পৌর কমিটির ৫ নম্বর ওয়ার্ড সাধারণ সম্পাদক সাদিপুর গ্রামের অধিবাসী আবুল কালাম, সেরাজুল ইসলাম, নজরুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

তানোর থানার উপ-পরিদর্শক শহিদুল ইসলাম জানান, ঘটনাটি সিভিল মামলা। সেক্ষেত্রে পুলিশের খুব বেশি কিছু করার নেই। তারপরেও পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে যতটুকু পেরেছে অভিযোগ খতিয়ে দেখেছে। তবে আদালতকেই এর ফয়সালা করতে হবে।

তবে অভিযুক্ত ওই যুবলীগ নেতা জোবায়েরের সাথে ফোনে যোগাযোগ করা হলে সব অভিযোগ অস্বীকার করে তিনি বলেন, যে জমি দখল করেছেন তা তিনি নিজে ক্রয় করেছিলেন। সম্প্রতি তিনি যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে দলের অনেকেই তার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে সুনাম নষ্ট করতে চাচ্ছে।
- See more at: http://www.sheershanewsbd.com/2015/08/22/93454#sthash.IMSbPKm6.dpuf

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ