ঢাকা, শুক্রবার 16 November 2018, ২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের পর বগুড়া মেডিকেল কলেজ বন্ধ ঘোষনা

বগুড়া অফিস : ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের পর বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষনা করা হয়েছে। গতকাল বুধবার বেলা ১১ টায় একাডেমিক কাউন্সিলের বৈঠকে মেডিকেল কলেজ বন্ধ ঘোষনার পাশাপাশি গতকাল বিকেল ৪টার মধ্যে ছাত্র-ছাত্রীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়।
জানাগেছে, শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি ইন্টারনী চিকিৎসক ডাঃ আবু আহাদ সিজার ও সাবেক সাধারন সম্পাদক ডাঃ আতিকুর রহমান আতিক গ্রুপের মধ্যে কলেজের ক্যান্টিন পরিচালনা নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। মঙ্গলবার রাত ১২টার দিকে ক্যান্টিনের খাবারের মান নিয়ে দুই গ্রুপের সমর্থকদের মধ্যে ঝগড়া বিবাদ হয়। এর জের ধরে রাত ৩টার দিকে দুই গ্রুপের নেতাকর্মীরা লাঠি শোটা ও হকিস্টিক নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। প্রায় আধা ঘন্টা ব্যাপী সংঘর্ষে ক্যান্টিন ছাড়াও হোস্টেলের তিনটি কক্ষ ভাংচুর এবং মালামাল তছনছ করা হয়। সংঘর্ষের পর রাতেই কলেজ ক্যাম্পাসে পুলিশ মোতায়েন করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনা হয়।

গতকাল বুধবার সকাল থেকে আবারো দুই গ্রুপের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দিলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়। পরে বেলা ১১ টায় একাডেমিক কাউন্সিলের জরুরী বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে শান্তিপুর্ন পরিবেশ বজায় রাখতে অনির্দিষ্টকালের জন্য মেডিকেল কলেজ বন্ধ ঘোষনা করে বিকেল ৪টার মধ্যে ছাত্র ছাত্রীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়। নির্দেশ পাওয়ার পরপরই শিক্ষার্থীরা হল ত্যাগ করতে শুরু করে। বিকেল ৪টার মধ্যেই সবাই হল ছেড়ে চলে যায়।

শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজর উপাধ্যক্ষ ডাঃ রেজাউল ইসলাম জানান, ক্যান্টিন পরিচালনা নিয়ে  মঙ্গলবার রাতে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ হয়। এর জের ধরে কলেজ ক্যাম্পাসে উত্তেজনা দেখা দেয়ায় একাডেমিক কাউন্সিলের বৈঠকে কলেজ অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষনা করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ