ঢাকা, শুক্রবার 18 October 2019, ৩ কার্তিক ১৪২৬, ১৮ সফর ১৪৪১ হিজরী
Online Edition

ব্রিটিশ এমপি জো কক্সে'র খুনির পরিচয় মিলেছে

অনলাইন ডেস্ক: ব্রিটিশ লেবার পার্টির এমপি জো কক্সের হত্যাকারীর পরিচয় মিলেছে। ওই খুনির নাম টমি মিয়ার। 

বৃহস্পতিবার জো কক্স নিজের নির্বাচনী এলাকা ওয়েস্ট ইয়র্কশায়ারের ব্রিস্টলে একটি লাইব্রেরির সামনে জো কক্স যখন নিজ নির্বাচনী এলাকার অধিবাসীদের সাথে কথা বলছিলেন, তখনই টমি হামলা চালায়।

৫২ বছর বয়সি এই খুনি জো কক্সকে গুলি করার আগে বেশ কয়েকবার ছুরিকাঘাত করে।

ব্রিটিনের দৈনিক দি সানের খবরে বলা হয়, টমি মিয়ার ইউরোপীয় ইউনিয়ন বিরোধীদের একজন। ফলে ইউরোপীয় ইউনিয়ন বিরোধীদের দ্বারাই তিনি এই হত্যায় উৎসাহিত হয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, হামলার পর এমপি জো কক্স মেঝেতে পড়ে যান। তার শরীর থেকে রক্ত ঝরছিল। এ হামলায় আর একজন সামান্য আহত হয়েছে।

ওয়েস্ট ইয়র্কশায়ার পুলিশ জানিয়েছে, জো কক্সের ওপর হামলার সন্দেহে ব্রিস্টলের মার্কেট স্ট্রিট থেকে এক ব্যক্তিকে আটক করা হয়েছে।

তবে এখনো তার ওপর হামলার কারণ সম্পর্কে কিছু জানায়নি পুলিশ।

হামলার পর জো কক্সকে উদ্ধার করে জরুরি ভিত্তিতে এয়ার অ্যাম্বুলেন্সে লিডসের একটি হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে সেখানে তার মৃত্যু হয়।

প্রত্যক্ষদর্শী একজন ক্যাফে মালিক ক্লার্ক রথওয়েল জানান, তিনি স্বজোরে ফেঁটে পড়ার মতো শব্দ শুনতে পান, একটি বড় বেলুন ফাঁটলে যেমন শব্দ হয়, তেমন। ঘটনাস্থলে একজন পঞ্চাশোর্ধ ব্যক্তিকে বন্দুক হাতে দেখতে পান তিনি।

ক্লার্ক রথওয়েলের ভাষ্যমতে, এমপি জো কক্সকে দুই বার গুলি করেন বন্দুকধারী। প্রথমবার গুলি করার পর তিনি মেঝেতে পড়ে যান। এরপর দ্বিতীয় বার তার মুখের দিকে গুলি করেন লোকটি।

এক ব্যক্তি বন্দুকধারীর দিকে এগিয়ে এলে তাদের মধ্যে ধস্তাধস্তি হয়। পরে হামলাকারী তার পকেট থেকে ছুরি বের করে এলোপাতাড়ি আঘাত করতে থাকে। এ সময় ভয়ে চিৎকার করে লোকজন ছুটে পালায়।

গত পঁচিশ বছরের মধ্যে জো কক্সই প্রথম কোনো এমপি যাকে হত্যা করা হলো।

এর আগে ১৯৯০ সালে পদে আসীন অবস্থায় আইরিশ রিপাবলিকানদের হামলায় কনজারভেটিভ একজন এমপি মারা গিয়েছিলেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ