ঢাকা,বুধবার 14 November 2018, ৩০ কার্তিক ১৪২৫, ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

কেনিয়ায় মহিলা শিল্পীকে লাথি মারার অভিযোগে গায়ক বহিষ্কার

অনলাইন ডেস্ক: কেনিয়ার কর্তৃপক্ষ আফ্রিকার বিপুল জনপ্রিয় প্রথম সারির একজন গায়ককে এক মহিলাকে লাথি মারার দায়ে সেদেশ থেকে বের করে দিয়েছে।

গণতান্ত্রিক কঙ্গো প্রজাতন্ত্রের জনপ্রিয় গায়ক কোফি ওলোমাইড কনসার্ট পরিবেশন করতে কেনিয়া গিয়েছিলেন। সঙ্গে ছিল কয়েকজন নৃত্যশিল্পী।

কিন্তু বিমানবন্দরে তোলা একটি ভিডিওতে দেখা যায় গায়ক ওলোমাইড একটি মহিলাকে লাথি মারছে।

ওই ভিডিও অনলাইনে ছড়িয়ে পড়লে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে এ নিয়ে প্রতিবাদের ঝড় ওঠে।

তিনজন নৃত্যশিল্পী সহ মিঃ ওলোমাইডকে কঙ্গোর রাজধানী কিনশাসায় ফেরত পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

তিনি কাউকে লাথি মারার অভিযোগ অস্বীকার করেন। কিন্তু কেনিয়াতে ঢোকার কয়েক ঘন্টা পরেই তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

৬০ বছর বয়সী এই গায়ক তার দলের একজন মহিলা নৃত্যশিল্পীকে লাথি মেরেছেন বলে যে অভিযোগ উঠেছে তা অস্বীকার করে মিঃ ওলোমাইড বিবিসিকে বলেন তার সঙ্গে যাওয়া নৃত্যশিল্পীদের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়া এক মহিলাকে তিনিথামাতে গিয়েছিলেন।

বিমানবন্দরে তোলা যে ভিডিও অনলাইনে ঝড় তুলেছে তা কেনিয়ার সংবাদ টিভি চ্যানেলে দেখানো হয় যেখানে দেখা যায় মিঃ ওলোমাইড তার একজন নৃত্যশিল্পীর ওপর চড়াও হয়েছেন এবং তাদের থামাতে মধ্যস্থতা করছে পুলিশ।

কেনিয়ার যুবমন্ত্রী ওই গায়কের ভিসা বরাবরের জন্য বাতিল করে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

তিনি বলেছেন নারীদের সম্মানহানি মানবাধিকারের ব্যাপক লংঘন এবং কেনিয়া তা কোনোভাবেই বরদাস্ত করবে না।
-বিবিসি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ