ঢাকা, মঙ্গলবার 25 September 2018, ১০ আশ্বিন ১৪২৫, ১৪ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে দেশে ফিরছেন আশরাফুল

স্পোর্টস ডেস্ক: গত কয়েক সপ্তাহ ধরে কেন্টে আন-অফিসিয়াল সানডে ক্রিকেট লিগ খেলছিলেন মোহাম্মদ আশরাফুল। কিন্তু এইধরণেই অপেশাদার লিগে খেলার সময় অবশেষে ফুরোল। আজ ১৩ আগস্ট থেকে আর তিনি কোন ‘নিষিদ্ধ’ ক্রিকেটার নন।
বিপিএলে ফিক্সিংয়ের দায়ে নিষিদ্ধ মোহাম্মদ আশরাফুলের নিষেধাজ্ঞা শেষ হচ্ছে আজ শনিবার(১৩ আগস্ট)। আজ সকাল ৮টায় তার লন্ডন থেকে ঢাকায় ফেরার কথা।
তিন বছর নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে আজ আবারও তিনি মুক্ত, খেলতে পারবেন ঘরোয়া ক্রিকেটে। তবে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে হলে তাকে আরো দুই বছর অপেক্ষা করতে হবে।

২০১৩ সালে বিপিএলের দ্বিতীয় সংস্করণে ফিক্সিংয়ে জড়িত থাকায় আশরাফুলকে ৩ বছরের স্থগিত নিষেধাজ্ঞাসহ আট বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে বিসিবির গঠিত বিশেষ ট্রাইব্যুনাল। পরে আশরাফুল আপিল করলে সেই নিষেধাজ্ঞা কমে আসে দুই বছরের স্থগিত নিষেধাজ্ঞাসহ পাঁচ বছরে। সে অনুযায়ী বাংলাদেশের সাবেক এই অধিনায়কের নিষেধাজ্ঞা উঠে যাচ্ছে ১৩ আগস্ট।

তবে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হলেও এই ব্যাটসম্যান কোন্ ধরনের ক্রিকেট খেলতে পারবেন সেটা নিয়ে এখনও আছে সংশয়। আশরাফুলের নিষেধাজ্ঞার ব্যাপারে বিস্তারিত  জানতে চেয়ে আইসিসির কাছে চিঠি পাঠিয়েছে বিসিবি। রোববারের মধ্যে আশরাফুলের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে বিসিবি।

ধারণা করা হচ্ছিলো ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক লংগার ভার্সন ক্রিকেট বিসিএল দিয়েই হয়তো আবার মাঠে নামবেন আশরাফুল। যেটি শুরু হবে আগামী ২০ সেপ্টেম্বর।

কিন্তু চার দলের বিসিএলে দল নির্বাচনে উঠে আসে পারফরম্যান্সের ব্যাপারটি। ঘরোয়া ক্রিকেটের সেরা পারফরমাররাই সুযোগ পান বিসিএলে।

সম্প্রতি যমুনা টিভিতে প্রচারিত এক রিপোর্টে দাবি করা হয়েছিল, আইসিসির কোন এক মুখপাত্র তাদের জানিয়েছেন যে, আগামী দুই বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরতে না পারলেও বিসিবির অধীনে আয়োজিত সব ধরণের ঘরোয়া টুর্নামেন্টে খেলতে পারবেন তিনি। সেক্ষেত্রে বিসিএল, ডিপিএল, এনসিএল এমনকি বিপিএলে খেলতেও কোন বাধা রইবে না আশরাফুলের।

তবে কয়েকদিন আগেই দেশের অন্যতম প্রভাবশালী দৈনিক নিউ এজকে আশরাফুলের ব্রিটিশ আইনজীবী ইয়াসিন প্যাটেল স্বয়ং জানিয়েছিলেন, ঘরোয়া ক্রিকেটে ফিরলেও আগামী দুই বছর জাতীয় দলের হয়ে এবং বিপিএল বা এইধরণের ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টুর্নামেন্ট ও বাইরের দেশের প্রথম শ্রেণীর ক্রিকেটে খেলতে পারবেন না তিনি।

প্রকৃত অবস্থা জানার জন্য তাই রোববারের বিসিবি সভার দিকেই তাকিয়ে থাকতে হবে, আশরাফুলের ব্যাপারে বিসিবি কী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। ঐদিন বিসিবিও আইসিসির তরফ থেকে পরিষ্কারভাবে জানতে পারবে ঠিক কোন কোন ঘরোয়া লিগে খেলার জন্য বিবেচিত হবেন আশরাফুল।
ডি.স/আ.হু

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ