ঢাকা, বুধবার 26 September 2018, ১১ আশ্বিন ১৪২৫, ১৫ মহররম ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

লিবিয়া উপকূলে সাড়ে ছয় হাজার অভিবাসী উদ্ধার

অনলাইন ডেস্ক: লিবিয়ার সন্নিকটে, ভূমধ্যসাগর থেকে প্রায় সাড়ে ছয় হাজার অভিবাসীকে উদ্ধার করেছে ইতালির কোস্ট গার্ড।

সাম্প্রতিক সময়ে একসাথে উদ্ধার করা অভিবাসীদের মধ্যে এটি সবচে বড় সংখ্যা।

সোমবারে এই বিপুল সংখ্যক মানুষকে উদ্ধার করতে সব মিলিয়ে প্রায় ৪০টি উদ্ধার অভিযান চালাতে হয়েছে বলে জানিয়েছে ইতালির কোস্ট গার্ড।

লিবিয়ার সাব্রাতা শহর থেকে ১২ মাইল দূরে এই উদ্ধারকাজ চালানো হয়। নিরাপদ জীবনের সন্ধানে দেশ ছেড়ে আসা এই অভিবাসীদের দলে নানা দেশের মানুষ একসঙ্গে ছিলেন।

উদ্ধারকাজে ইতালির জাহাজের পাশাপাশি ইউরোপীয় ইউনিয়নের বর্ডার এজেন্সি ফ্রন্টেক্স, এবং বেসকারী সংস্থা প্রোঅ্যাক্টিভ ওপেন আর্ম, ও মেডিসিন সান্স ফ্রন্টিয়ার্স-এর উদ্ধারতরী-ও ছিল।

উদ্ধারকারী জাহাজ দেখে একদিকে, আনন্দ ও উচ্ছ্বাসে পানির মধ্যে লাফিয়ে পড়ে সাঁতরে সেই জাহাজের দিকে এগুতে চেষ্টা করেছে ইরিত্রিয়া ও সোমালিয়া থেকে আসা অনেক অভিবাসী।

আবার অন্যদিকে, ছোটো-ছোটো শিশুদের কোলে নিয়ে খুব সতর্কভাবেও উদ্ধারতরীর দিকে এগিয়েছে অনেকে।

লিবিয়ার রাজনৈতিক অস্থিতিশীল পরিস্থিতির সুযোগে দেশটিকে মানব-পাচারের জন্য অনেকটাই নিরাপদ ঘাঁটি হিসেবে ব্যবহার করছে পাচারকারীরা।

বার্তা সংস্থা এপি জানিয়েছে, সমুদ্রে চলার অনুপযোগী একটি জলযানে করে অভিবাসীরা সাগর পাড়ি দিয়েছিল। তবে, উদ্ধারকারীদের কাছাকাছি পৌঁছানোর মত যথেষ্ট পরিমাণে জ্বালানী তাদের ছিল।

অর্থনৈতিকভাবে একটা সচ্ছল জীবন পাবার আকাঙ্ক্ষায় আফ্রিকা থেকে হাজার হাজার মানুষ জীবনের ঝুঁকি নিয়ে লিবিয়া-উপকূল থেকে সাগর পাড়ি দেয়।

তাদের এই যাত্রায় সঙ্গী হিসেবে থাকে যুদ্ধ-বিধ্বস্ত মধ্যপ্রাচ্য ও আফগানিস্তান থেকে পালিয়ে আসা শরণার্থীর দল।

এইরকম বিপদসংকুল যাত্রা করে এই পর্যন্ত বহু মানুষ যাত্রাপথেই প্রাণ হারিয়েছেন।

-বিবিসি

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ