ঢাকা, সোমবার 12 September 2016 ২৮ ভাদ্র ১৪২৩, ৯ জিলহজ্ব ১৪৩৭ হিজরী
Online Edition

গরু পাচার নিয়ে বিতর্কে জড়ালেন মলয় ও মেনকা

১১ সেপ্টেম্বর, ইন্টারনেট : পশ্চিমবঙ্গ দিয়ে বাংলাদেশে গরু পাচার নিয়ে প্রকাশ্যেই বিতর্কে জড়ালেন ভারতের কেন্দ্রীয় নারী ও শিশু কল্যাণ মন্ত্রী মেনকা গান্ধি ও রাজ্যের আইনমন্ত্রী মলয় ঘটক। গরু পাচারের টাকা সন্ত্রাসবাদীদের হাতেও যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন মেনকা।
সল্টলেকে আইন বিশ্ববিদ্যালয়ে গত শনিবার ‘পশুপাখিদের সুরক্ষায় আইনি পদক্ষেপ’ বিষয়ে এক আলোচনা অনুষ্ঠানে যোগ দেন মেনকা ও মলয় ঘটক। গরু পাচার ও শহরে অবাধে পশুপাখি বিক্রি ঠেকাতে মলয়বাবুকে অনুরোধ করেন তিনি। পশুপাখির উপরে নির্যাতন এখনই বন্ধ হওয়া উচিত বলে মনে করেন মলয়বাবুও। কিন্তু তার বক্তব্য, ‘কেন্দ্র আইন না করলে রাজ্য এ নিয়ে কিছু করতে পারে না।’
বক্তৃতার মাঝেই মলয়বাবুকে থামিয়ে দিয়ে মেনকা বলেন, ‘গরু পাচার বা বেআইনিভাবে পশুপাখি বিক্রি ঠেকাতে কেন্দ্রীয় আইনের দরকার হয় না।’ এর পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রের প্রশ্নের জবাবে মেনকা ফের জানান, বাংলাদেশ সীমান্ত লাগোয়া পশ্চিমবঙ্গের জেলাগুলো (নদিয়া, মুর্শিদাবাদ) দিয়ে গরু পাচার হচ্ছে। এসময় কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর বক্তব্যের মাঝেই মলয়বাবু বলেন, ‘গরু তো পাচার হয়ে আসছে বিহার, উত্তরপ্রদেশ থেকে। আর সীমান্ত দিয়ে বাংলাদেশে যাচ্ছে। এসব দেখার জন্য বিএসএফ আছে।’ রাজ্যের আইনমন্ত্রীর এই ব্যাখ্যায় যে তিনি খুশি নন তা অনুষ্ঠানের শেষে জানিয়ে দিয়েছেন মেনকা। তার মতে, ‘কেউ নিজের কাজ করতে চায় না। অন্যের ঘাড়ে দায় চাপানোই রেওয়াজ হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ