ঢাকা, মঙ্গলবার 4 October 2016 ১৯ আশ্বিন ১৪২৩, ২ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে ইসলামী ব্যাংকের ৩০৫তম শাখা উদ্বোধন

ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড-এর ৩০৫তম দেবীগঞ্জ শাখা পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জে গতকাল সোমবার উদ্বোধন করা হয়। ব্যাংকের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মুস্তাফা আনোয়ার প্রধান অতিথি হিসেবে এ শাখা উদ্বোধন করেন। ম্যানেজিং ডাইরেক্টর ও প্রধান নির্বাহী মোহাম্মদ আবদুল মান্নান-এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন ব্যাংকের রিস্ক ম্যানেজমেন্ট কমিটির চেয়ারম্যান মো. আবদুুল মাবুদ, পিপিএম, পরিচালক মো: জয়নাল আবেদীন ও প্রফেসর ড. মো: সিরাজুল করিম। স্থানীয় ব্যবসায়ী ও বিশিষ্টজনদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দেবীগঞ্জ উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান পরিমল দে সরকার, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লুৎফুন নাহার লাকী, পঞ্চগড় চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ-এর সভাপতি আশরাফুল আলম পাটোয়ারী, বিশিষ্ট সমাজ সেবক আ.স.ম নুরুজ্জামান ও মো. আবদুল মালেক চিশতি। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ব্যাংকের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট ও রংপুর জোনপ্রধান মো: শহীদুল্লাহ। ব্যাংকের এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট ও ডেভেলপমেন্ট উইং প্রধান মো. মোশাররফ হোসাইনসহ ব্যাংকের উর্ধ্বতন নির্বাহী, কর্র্মকর্তা, স্থানীয় ব্যবসায়ী, পেশাজীবি ও গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। শাখা উদ্বোধনের প্রাক্কালে ২ অক্টোবর রবিবার ‘ইসলামী ব্যাংক ব্যবস্থার শ্রেষ্ঠত্ব ও সাফল্য’ শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়। ব্যাংকের ম্যানেজিং ডাইরেক্টর মোহাম্মদ আবদুল মান্নান-এর সভাপতিত্বে সেমিনারে মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট ও রংপুর জোনপ্রধান মো: শহীদুল্লাহ। আলোচনা পেশ করেন ব্যাংকের শরী’আহ সুপারভাইজরি কমিটির সদস্য সচিব ড. মোহাম্মদ আবদুস সামাদ ও দেবীগঞ্জ উপজেলা জামে মসজিদের খতিব হাফেজ মো: হাসিনুর রহমান।     

ইঞ্জিনিয়ার মুস্তাফা আনোয়ার প্রধান অতিথির ভাষণে বলেন, ইসলামী ব্যাংক ব্যবসা-বাণিজ্য, শিল্পায়ন, কৃষি, অবকাঠামো উন্নয়ন, কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও নারীর ক্ষমতায়নের মাধ্যমে দেশের সুষম ও টেকসই অর্থনৈতিক উন্নয়নে কাজ করছে। ইসলামী ব্যাংকের দেবীগঞ্জ শাখা এ এলাকায় কৃষি ও কৃষি নির্ভর শিল্প প্রতিষ্ঠা, এসএমই, কর্মসংস্থান তৈরী, নারীর ক্ষমতায়ন, দারিদ্র বিমোচনসহ মানুষের সার্বিক জীবনমান ও আর্থসামাজিক উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। একটি স্বনির্ভর জাতি ও মধ্যম আয়ের দেশ গঠনে ইসলামী ব্যাংক ৩৩ বছর ধরে কাজ করছে উল্লেখ করে তিনি এ ব্যাংকের কল্যাণমুখী সেবা গ্রহণ করতে সকলের প্রতি আহবান জানান।  

বিশেষ অথিতিবৃন্দ তাদের বক্তব্যে বলেন, ইসলামী ব্যাংক বিনিয়োগ বিকেন্দ্রীকরণ, এসএমই ও ইসলামিক মাক্রোফাইন্যান্সের মাধ্যমে নতুন নতুন উদ্যোক্তা তৈরী এবং ধনী-গরিবের ব্যবধান কমিয়ে একটি সুষম আর্থিক কাঠামোর মাধ্যমে জাতীয় অর্থনীতিকে সুদৃঢ় করছে। তারা বলেন, খাদ্য, বস্ত্র, আবাসন, শিক্ষা ও চিকিৎসাসহ সাধারণ মানুষের মৌলিক প্রয়োজনকে গুরুত্ব দিয়ে সার্বজনীন কল্যাণে কাজ করছে এ ব্যাংক। 

মোহাম্মদ আবদুল মান্নান সভাপতির ভাষণে বলেন, ইসলামী ব্যাংক গ্রামীণ বিনিয়োগ বৃদ্ধির মাধ্যমে শহর ও গ্রামের অর্থনৈতিক ব্যবধান কমিয়ে দেশের টেকসই উন্নয়ন ও গ্রামীণ জীবন-মান উন্নয়নে কাজ করছে। তিনি বলেন, জনপদের উন্নয়নের জন্য স্থানীয় আমানত স্থানীয়ভাবে বিনিয়োগের উপর গুরুত্ব দিয়ে এ অঞ্চলে কৃষি ও প্রযুক্তিনির্ভর শিল্পকারখানা প্রতিষ্ঠায় অগ্রণী ভূমিকা পালন করছে ইসলামী ব্যাংক। ইসলামী ব্যাংকের গ্রামমূখী উন্নয়ন বাস্তবায়নে দেবীগঞ্জ একটি আদর্শ এলাকা বলে তিনি উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, ব্যাংকের পল্লী উন্নয়ন কর্মসূচীর মাধ্যমে ২০ হাজার গ্রামের ১০ লাখ প্রান্তিক জনগোষ্ঠির জীবনমান উন্নয়ন ও নারীর ক্ষমতায়ণে গুরত্বপূর্ন ভূমিকা পালন করছে যা এখন সারা পৃথিবীতে দারিদ্রমুক্তির মডেল হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ