ঢাকা, বুধবার 5 October 2016 ২০ আশ্বিন ১৪২৩, ৩ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

নিরপরাধ ছাত্রদের টার্গেট করে এমন অমানবিকতা মেনে নেয়া যায় না -ছাত্রশিবির

যশোরে শিবির কর্মী রেজুয়ানকে গ্রেফতারের পর ২ মাস পেরিয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত তাকে আদালতে হাজির না করায় উদ্বেগ প্রকাশ এবং অনতিবিলম্বে তার সন্ধান দাবি করে বিবৃতি দিয়েছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির। 

গতকাল মঙ্গলবার দেয়া যৌথ বিবৃতিতে ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি আতিকুর রহমান ও সেক্রেটারি জেনারেল ইয়াছিন আরাফাত বলেন, শিবির কর্মী রেজুয়ানকে নিয়ে চরম দায়িত্বহীনতা ও অমানবিকতার পরিচয় দিচ্ছে পুলিশ। গত ৪ জুলাই দুপুর ১২টায় বেনাপোল পোর্ট সংলগ্ন দূর্গাপুর বাজার থেকে কোন কারণ ছাড়াই গ্রেফতার করা হয় শিবির কর্মী রেজুয়ানকে। খবর পেয়ে তার পরিবারের সদস্যরা থানায় যোগাযোগ করলে পুলিশ তাকে গ্রেফতারের কথা অস্বীকার করে। তার সন্ধান দাবি করে ছাত্রশিবিরের পক্ষ থেকে একাধিক বার বিবৃতি দেয়া হয়। পরিবারের সদস্যরা বারবার আইনশৃঙ্খলা বাহীনির দারস্থ হচ্ছেন। কিন্তু এখন পর্যন্ত তার কোন খোঁজ বা আদালতে তোলেনি পুলিশ। উল্টো রহস্যজনকভাবে তার গ্রেফতারের বিষয়টি এড়িয়ে যাচ্ছে। অথচ তাকে প্রকাশ্য দিবালোকে দোকান কর্মচারী, মালিকসহ অসংখ্য মানুষের সামনে থেকে গ্রেফতার করা হয়। আমরা বিশ্বস্ত সূত্রে জানতে পেরেছি, রেজুয়ান ঢাকায় ডিবি হেফাজতে আছে। একজন মেধাবী ছাত্রকে গ্রেফতার করে অস্বীকার করা এবং অমানবিকভাবে তাকে দীর্ঘদিন পরেও আদালতে না উঠানো কোনভাবেই মেনে নেয়া যায় না, বরং তা সরাসরি প্রচলিত আইনের লঙ্ঘন। পুলিশের এই নির্মম তামাশায় তার পরিবারের সুখ-শান্তি কেঁড়ে নিয়েছে। অন্যদিকে ছাত্ররা এখন নিজেদের জান-মাল নিয়ে শঙ্কিত। একজন ছাত্রকে গ্রেফতারের পর ২ মাসেও আদালতে হাজির না করার কোন যৌক্তিক কারণ থাকতে পারে না। আমরা আশঙ্কা করছি, তাকে নিয়ে কোন গভীর ষড়যন্ত্রে লিপ্ত রয়েছে সরকার। একই সাথে নানা শঙ্কা ও প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। কারণ সম্প্রতি যশোরে এমনভাবে দুই ছাত্রকে গ্রেফতারের পর অস্বীকার করে পরে রাতের আঁধারে পায়ে গুলী করেছে পুলিশ। পুলিশের বেআইনী আচরণে তার পরিবারের সাথে সাথে আমরাও গভীরভাবে উদ্বিগ্ন।

নেতৃদ্বয় বলেন, জাতি এমন নির্মম ও অমানবিক তামাশার সমাপ্তি দেখতে চায় না। নিরপরাধ ছাত্রদের টার্গেট করে এমন অমানবিকতা মেনে নেয়া যায় না। আমরা পুলিশ ও প্রশাসনের প্রতি আহ্বান রেখে বলতে চাই, পুলিশের পোষাকে এই বেআইনী কর্মকাণ্ডে দেশের মানুষ চরমভাবে বিরক্ত ও ক্ষুব্ধ। আমরা স্পষ্ট করে বলতে চাই, শিবির কর্মী রেজুয়ানকে নিয়ে কোন প্রকার নাটক বা তার সামান্যতম ক্ষতি ছাত্রশিবির মেনে নিবে না। 

নেতৃদ্বয় গ্রেফতারকৃত শিবির কর্মী রেজুয়ানের অবস্থান নিশ্চিত ও তাকে আদালতে হাজিরের মাধ্যমে আইনী প্রক্রিয়া অনুসরণ করার জন্য প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানান।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ