ঢাকা, বুধবার 5 October 2016 ২০ আশ্বিন ১৪২৩, ৩ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

অতিরিক্ত অর্থ দাবি

গৌরীপুর (ময়মনসিংহ) সংবাদদাতা: গৌরীপুর উপজেলার  বোকানগর ইউনিয়নর বৃ-বড়ভাগ গ্রামের ৩.০৮১ কি.মি. টার বিদ্যুতায়নের আওতায় বৈধ গ্রাহকদের কাছে সংযোগের জন্য অতিরিক্ত ১ লাখ টাকা দাবী করেছেন ঠিকাদারের মনোনীত ব্যক্তি জনৈক মমিনুল হক হীরার বিরুদ্ধে অভেযোগ তুলেছে গ্রামবাসী। এ নিয়ে এলাকাবাসীর মাঝে চরম ক্ষোভ ও উত্তেজনা বিরাজ করছে।
অভিযোগকারী উল্লিখিত গ্রামের মৃত আজিম আকন্দের ছেলে আঃ হাই, মৃত আঃ রাজ্জাকের ছেলে গিয়াস উদ্দিন, আঃ ওয়াদুদের ছেলে সুমন, মৃত জুবেদ আলীর ছেলে দুলাল মিয়া ও আঃ জব্বার জানান, উপজেলার বোকাইনগর ইউনিয়নের বৃ-বড়ভাগ গ্রামের আঃ রফ আকন্দের বাড়ী থেকে একরাম হোসেনের বাড়ী পর্যন্ত ৩.০৮১ কিমি বিদ্যুতায়নের জন্য পল্লী বিদ্যুৎ থেকে টেন্ডারের মধ্যমে কাজ পেয়েছেন মেসার্স জুলহাস এন্ড কো:। মেসার্স জুলহাস এন্ড কো: এর মনোনীত জনৈক ব্যক্তি  মমিনুল হক হীরা গ্রাম বাসীর কাছে ১ লাখ টাকা দাবী করে, টাকা না দিলে  বাড়িতে বিদ্যুৎ পাবেনা বলে কয়েক জনকে হুমক দেয়। এ ব্যাপারে হীরার সাথে কথা বললে তিন জানায় মেসার্স জুলহাস এন্ড কোঃ এর কাছ থেকে সে কাজটি কিনের নিয়েছে। সঠিক সময়ে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ মালামাল সর্বরাহ করতে না পারায় তাদের শ্রমিকদের বসিয়ে রেখে টাকা দিতে হচ্ছে তাই তিনি গ্রাম বাসীর কাছে টাকা দাবী করেন। কেউ টাকা না দিলে গ্রামবাসীকে সংযোগ দেয়া হবে। টাকা নেয়ার কোন নিয়ম আছে কি না জানতে চাইলে তিনি বলেন কোন নিয়ম নেই মানবিক দিক দিয়ে আমি চেয়েছি। এ ব্যাপারে পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি ময়মনসিংহ-৩ এর জিএম রেজাউল্লাহ খান বলেন টাকা নেয়ার কোন নিয়ম নেই। যদি কোন ঠিকাদার টাকা চায় তাহলে এলাকাবাসী তাকে ধরে আইনের হাতে সোপর্দ করার জন্য অনুরোধ করা হলো। দুর্নীতিবাজ ঠিকাদার বা কোন কর্মকর্তা কর্মচারী এরা দেশের শত্রু।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ