ঢাকা, বুধবার 5 October 2016 ২০ আশ্বিন ১৪২৩, ৩ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

চৌগাছায় উৎসব মুখর পরিবেশে ৩৫টি মণ্ডপে দুর্গা পূজার প্রস্তুতি

চৌগাছা (যশোর) সংবাদদাতা : যশোরের চৌগাছায় ৩৫টি মণ্ডপে দুর্গা পূজার সকল প্রস্তুতি শেষ হয়েছে। মঙ্গবার সরেজমিনে উপজেলার কালিমন্দীরে প্রতিমা শিল্পী (পাল মসাই) বিশ্বজিৎ কুমার বিশ্বাস ও দেবু কুমার বিশ্বাসের সাথে কথা হয়। তারা জানান ১টি প্রতিমা তৈরি করতে ৭/৮ হাজার টাকা খরচ হয়। এতে ১০/১৫ দিন কাজ করলে ১৭/২০ হাজার টাকাদরে বিক্রি হয়। আমরা এ বছর ১১টি প্রতিমা প্রস্তুত করেছি। সনাতন ধর্মালম্বী হিন্দু সম্প্রদায়ের বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গা পূজার আর মাত্র কয়েকদিন বাকী। শারদীয় দুর্গা উৎসবকে ঘিরে উৎসবে মেতে উঠেছে উপজেলার সনাতন ধর্মালম্বী হিন্দু সম্প্রদায়ের শিশু, তরুণ, যুবক ও বৃদ্ধারা। ইতোমধ্যে উপজেলার গ্রামগুলোতে মণ্ডপে প্রতিমা শিল্পীরা তাদের মেধা ও প্রজ্ঞাদিয়ে ফুটিয়ে তুলেছে মা দেবী দুর্গার মূর্তি। শেষ তুলির আঁচড় দিয়ে মাকে সাজাতে মহাব্যস্ত সময় পার করছে ভক্তরা। বাংলাদেশ পূজাউৎযাপন পরিষদের চৌগাছা উপজেলা সভাপতি অধ্যক্ষ বলায় চন্দ্র পাল জানান উপজেলার ফুলসারা ইউনিয়নের জামিরায় ১টি ও বলিদাপাড়ায় ১টি, পাশাপোল ইউনিয়নের পলুয়ায় ১টি ও রানিয়ালীতে ১টি, সিংহঝুলী ইউনিয়নে গরীবপুর ১টি, ধুলীয়ানী ইউনিয়নে ধুলিয়ানীতে ১টি, চৌগাছা ইউনিয়নে দক্ষিণ কয়ারপাড়ায় ২টি, উত্তর কয়ারপাড়ায় ২টি, দিঘলসিংহায় ১টি ও বেড়গবিন্দপুর ১টি, পাতিবিলা ইউনিয়নে হায়াতপুর ১টি, জগদিশপুর ইউনিয়নে আড়পাড়ায় ২টি, আড়কান্দিতে ২ ও মাড়–য়ায় ১টি, হাকিমপুর ইউনিয়নে যাত্রাপুর ১টি ও হাকিমপুর ১টি, নারায়ণপুর ইউনিয়নে নারায়ণপুরে ১টি, স্বরূপদহ ইউনিয়নে খড়িঞ্চায় ১টি, মাধবপুর ১টি, দেবলয়ে ১টি ও সাঞ্চাডাঙ্গায় ১টি, সুখপুকুরিয়া ইউনিয়নে পুড়াপাড়ায় ২টি, চুটারহুদায় ১টি, বর্ণি ১টি ও নগন বর্ণি ১টি মণ্ডবে প্রতিমা তৈরির কাজ শেষ হয়েছে। পৌর এলাকার ৯ টি ওয়ার্ডে ৪ টি পূজাম-বে প্রতিমা স্থাপন করে দুর্গা পূজার সকল প্রস্ততি ইতি মধ্যে শেষ হয়েছে। দুর্গা পূজার আনন্দকে উপভোগ করতে সরকার প্রতিমা তৈরীর জন্য প্রতি মন্ডবে ৫শ কেজি চাউল বরাদ্দ দিয়েছে যার বাজার মূল্য ১৩ হাজার ৪শ টাকা। এ ছাড়া উপজেলার কেন্দ্রীয় কালি মন্দিরে সরকারি অনুদান দেওয়া হয়েছে ৫শ ১০ কেজি চাউল যার বাজার মূল্য প্রায় ১৫ হাজার ৪শ টাকা।
বাংলাদেশ পূজাউৎযাপন পরিষদের উপজেলা শাখার আইন বিষায়ক সম্পাদক সাংবাদিক শ্যামল কুমার দত্ত জানান প্রতিবছরের ন্যায় এ বছর ও পৌর এলাকার কালিতলা কালিমন্দির, সর্দার পাড়া শ্মানঘাট মন্দির, ঋষিপাড়া বড় মন্দির, ইছাপুর সার্বজনিন কালি মন্দিরে শারদীয় দুর্গা পূজা ব্যাপক উৎসব মুখর পরিবেশে অনুষ্ঠিত হবে। এদিকে পূজা উপলক্ষ্যে সনাতন ধর্মালম্বী হিন্দু সম্প্রদায়ের জামায়- মেয়েদের মধ্যে বইছে হাঁসি-আনন্দের ফোঁয়ারা। তারা নতুন পোষাক কিনে আত্মীয়-স্বজন বাড়ীতে বেড়াতে এসেছে। চৌগাছা পৌর শহর নানা রকম ব্যানার ও তোরণ দিয়ে সাজানো হয়েছে। এ ব্যাপারে চৌগাছা থানার ওসি এম মশিউর রহমান জানান সনাতন ধর্মালম্বী হিন্দু সম্প্রদায়ের বড় ধর্মীয় উৎসব শারদীয় দুর্গা পূজা পালনে কঠোর নিরাপত্তার চাদরে ঢেকা থাকবে। নিরাপত্তা প্রদান করতে ইতোমধ্যে আমরা সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করেছি।
সিংড়া (নাটোর) সংবাদদাতা : চলনবিল অধ্যুষিত নাটোরের সিংড়ায় শারদীয় দুর্গাপূজা পালন উপলক্ষে উপজেলার ৮৭টি পূজা মন্ডবের আইনশৃংখলা রক্ষায় এক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কার্যালয়ে পূজা উদযাপন কমিটির সদস্যদের সমন্বয়ে এই সভা হয়।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) জাহেদুল ইসলামের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান শামীম হোসেন, সিংড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নাসির উদ্দিন মন্ডল, উপজেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি বিশ্বনাথ দাস কাশিনাথ, সাধারণ সম্পাদক গোপাল বিহারী দাস প্রমুখ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ