ঢাকা, শনিবার 15 October 2016 ৩০ আশ্বিন ১৪২৩, ১৩ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

যৌন হয়রানির অভিযোগ মিথ্যা দাবি করলেন ট্রাম্প

১৪ অক্টোবর, রয়টার্স, বিবিসি, ইন্ডিপেন্ডেন্ট : যুক্তরাষ্ট্রের আসন্ন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প মার্কিন সংবাদমাধ্যমের তীব্র সমালোচনা করে বলেছেন, নারীদের যৌন হয়রানি ও জোর করে এক নারীকে চুমু দেওয়ার অভিযোগ ‘সম্পূর্ণ মিথ্যা’।
৭০ বছর বয়সী ট্রাম্প তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে অভিযোগকারীদের ‘জঘন্যা মিথ্যুক’ বলে উল্লেখ করেছেন। তিনি এও অভিযোগ করেন যে, হিলারি গণমাধ্যমকে ব্যবহার করে তার প্রচারণায় ব্যাঘাত ঘটানোর অপচেষ্টা করছেন।
গত বুধবার কমপক্ষে ছয় নারী ট্রাম্পের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ তুলেছেন। নিউইয়র্ক টাইমস, এনবিসি, পিপলস ম্যাগাজিনসহ বেশ কয়েকটি সংবাদমাধ্যমে এসব খবর প্রকাশিত হয়েছে।
বৃহস্পতিবার ট্রাম্প ওয়েস্ট পাম বিচে এক সমাবেশে বলেন, ‘আমি নারীদের সঙ্গে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেছি বলে যে কুরুচিপূর্ণ অভিযোগ করা হয়েছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যা।’ট্রাম্প বলেন, ‘এসব অভিযোগ একেবারেই মিথ্যা। ক্লিনটন পরিবার ও তাদের সংবাদমাধ্যম মিত্ররা এসব অপপ্রচার চালাচ্ছে।’
ট্রাম্প জানান, তার আইনজীবীরা নিউইয়র্ক টাইমসের বিরুদ্ধে মামলা করার প্রস্তুতি নিচ্ছে।
এদিকে মার্কিন ফার্স্ট লেডি মিশেল ওবামা ট্রাম্পকে কঠোর ভাষায় আক্রমণ করেছেন। প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ২৬ দিন আগে ক্ষুব্ধ ফার্স্ট লেডি রিয়েল স্টেট ব্যবসায়ী ট্রাম্পকে তার ‘অশোভন’ আচরণের কড়া সমালোচনা করেন।
বৃহস্পতিবার নিউহ্যাম্পশায়ারে ডেমোক্রেটিক প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের এক সমাবেশে মিশেল ওবামা বলেন, ‘আমাদের এখন সবার একসঙ্গে দাঁড়িয়ে বলার সময় এসেছে, যথেষ্ট হয়েছে। এসব এখনই থামাতে হবে।’
একই দিন সন্ধ্যায় মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামাও ওহাইও রাজ্যে ট্রাম্পের সমালোচনা করেন। তিনি বলেন, রিপাবলিকানরা গত কয়েক দশক ধরে যে নোংরা পরিস্থিতির সৃষ্টি করেছেন ট্রাম্প তারই ফসল।
আগামী ৮ নভেম্বর যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।
এছাড়া ট্রাম্পের বিরুদ্ধে চলমান শিশু ধর্ষণ মামলার প্রাক-বিচার সভার দিন নির্ধারণ করেছে আদালত। গত সোমবার নিউইয়র্কের ফেডারেল জজ রনি আব্রামসের আদালত আগামী ১৬ ডিসেম্বরকে ওই মামলার প্রাক বিচার সভার নিন্দেশ দিয়েছেন।
নারীদের নিয়ে অতিমাত্রায় অশ্লীল এবং যৌন মন্তব্য সংবলিত ভিডিও ছড়িয়ে পড়ার পর থেকেই ধস নামছে ডোনাল্ড ট্রাম্পের জনপ্রিয়তায়। রয়টার্স-ইপসোস-এর আগের জরিপে হিলারির চেয়ে ৫ পয়েন্ট পিছিয়ে ছিলেন ট্রাম্প। কিন্তু সর্বশেষ জরিপে আরও পিছিয়েছেন রিপাবলিকান দলীয় এ মার্কিন প্রেসিডেন্ট প্রার্থী। মঙ্গলবার প্রকাশিত এ জরিপের ফলে ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের চেয়ে ৮ পয়েন্ট পিছিয়েছেন ট্রাম্প।
নারীদের নিয়ে কদর্য মন্তব্যের ফলে ট্রাম্পের প্রতি ক্ষুব্ধ তার দলের নেতাকর্মীরাও। রয়টার্স জানিয়েছে, প্রতি ৫ জনে একজন রিপাবলিকান বলেছেন, নারীদের খপ করে ধরার মতো মন্তব্য করে প্রেসিডেন্ট হওয়ার যোগ্যতা হারিয়েছেন। এমনকি রক্ষণশীল পত্রিকা ওয়ালস্ট্রিট জার্নাল ও এনবিসি নিউজ চ্যানেলের যৌথ জরিপেও হিলারিকে অগ্রসর হিসেবে দেখানো হয়েছে।
ওয়ালস্ট্রিট জার্নাল ও এনবিসি নিউজের জরিপে বলা হয়েছে, হিলারি সমর্থন পাবেন ৫২ শতাংশ ভোটারের। আর ট্রাম্পের সমর্থন রয়েছে ৩৮ শতাংশ। অর্থাৎ, তাদের হিসাবে হিলারি ১৪ পয়েন্টের ব্যবধানে এগিয়ে আছেন। এর আগে সেপ্টেম্বর মাসেও এ দুই প্রতিষ্ঠান জরিপ চালিয়েছিল। এতে মুখোমুখি প্রতিদ্বন্দিতায় হিলারি এগিয়ে ছিলেন ৭ পয়েন্টে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ