ঢাকা, বুধবার 19 October 2016 ৪ কার্তিক ১৪২৩, ১৭ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

রায়পুরে ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির মৃত্যু

রায়পুর (লক্ষ্মীপুর) সংবাদদাতা: লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে সরকারি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎকের ভুল চিকিৎসায় তাহমিনা আক্তার হাসি (২৮) নামের এক প্রসূতির মৃত্যু হয়েছে। এ সময় নবজাতকের মুখে ধারালো অস্ত্রের আঘাত পায়। তার মুখে কাটার চিহ্ন  দেখা গেছে।
রোববার বিকালে এ ঘটনায় নিহতের উত্তেজিত স্বজনরা বিক্ষোভ মিছিল করে হাসপাতাল ভাঙচুরের চেষ্টা চালায়।
তাৎক্ষণিক পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এরআগে দুপুরে মুমূর্ষু অবস্থায় নোয়াখালীর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে ওই প্রসূতির মৃত্যু হয়। নিহত তাহমিনা রায়পুর পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কেরোয়া গ্রামের কৃষক হেলাল উদ্দিনের স্ত্রী।
হাসপাতাল সূত্র ও নিহতের স্বজনরা জানায়, সকাল ১১ টার দিকে প্রসববেদনা উঠলে তাহমিনা আক্তারকে রায়পুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। দুপুরে ডা. শাহেলা জাহান শিমুর তার অস্ত্রেপাচার (সিজার) করেন। এ সময় প্রসূতি এক পুত্রসন্তানের জন্ম দেন। ওই চিকিৎসকদের ভুল চিকিৎসায় প্রসূতির অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হয়। অস্ত্রোপাচারের সময় নবজাতক মুখের একাংশ কাটা যায়। প্রসূতির অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণে প্রসূতির শারিরীক অবস্থার অবনতি ঘটে। পরে তড়িঘড়ি করে  নোয়াখালী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।
উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (ডাক্তার) শাহেলা জাহান শিমু মোবাইল ফোনে বলেন, গর্ভবতী মহিলার পানি শূন্যতা ও উচ্চ রক্তচাপের কারনে তাকে রেফার করা হয়েছে। তার পরিবারের সদস্যদের অনুরোধে তাকে অপারেশন করা হয়েছে। শিশুটি বেঁচে গেলেও চেষ্টা করেও মাকে রক্ষা করা সম্ভব হয়নি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ