ঢাকা, মঙ্গলবার 20 November 2018, ৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ১১ রবিউল আউয়াল ১৪৪০ হিজরী
Online Edition

আজ জেএসসি পরীক্ষা বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাবেন শিক্ষামন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক: প্রস্তুতি নিয়েও প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় হুট করে এবারের জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার দায়িত্ব ছেড়ে দেওয়ায় নিজেদের অবস্থান জানাতে সংবাদ সম্মেলনে আসছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

আজ (রোববার) সকাল ১১টায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে শিক্ষামন্ত্রী সংবাদ সম্মেলন করবেন বলে শনিবার মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ জনসংযোগ কর্মকর্তা মুহা. সাইফুল্লাহ জানিয়েছেন।

সাংবাদিকদের তিনি বলেন, “জেএসডি-জেডিসি পরীক্ষার সার্বিক বিষয় নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী কথা বলবেন।”

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, জেএসসি পরীক্ষা শুরুর ১০ দিন আগে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উদ্ভট সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ হয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী।

“নিরূপায় হয়েই এবারের জেএসসি-জেডিসি শিক্ষা মন্ত্রণালয় আয়োজন করবে এবং এটাই শেষ, রোববার সেই ঘোষণাই দেবেন শিক্ষামন্ত্রী,” বলেন এই কর্মকর্তা।

জেএসসি পরীক্ষা কোন মন্ত্রণালয়ের অধীনে হবে সে বিষয়ে মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্তের প্রয়োজন নেই জানিয়ে ওই কর্মকর্তা বলেন, জাতীয় শিক্ষানীতির আলোকেই জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা নেওয়ার দায়িত্ব গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কাছে চলে গেছে, ওই মন্ত্রণালয়কেই এই পরীক্ষা নিতে হবে।

প্রাথমিক শিক্ষার স্তর অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত উন্নীত না হওয়ার কথা জানিয়ে সব ধরনের প্রস্তুতি নেওয়ার পরও গত বৃহস্পতিবার প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার জানান, এবারের জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষার দায়িত্ব নেবে না তার মন্ত্রণালয়।

ওইদিন মন্ত্রী সাংবাদিকদের বলেছিলেন, জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা আয়োজনের দায়িত্ব শিক্ষা মন্ত্রণালয়কেই নিতে হবে। কারণ এই পরীক্ষা গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে নিতে হলে মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্ত লাগবে।

আগামী ১ থেকে ১৭ নভেম্বর জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষার সূচি নির্ধারিত আছে, যাতে ২২ লাখের বেশি শিক্ষার্থী অংশ নেবে।

গণশিক্ষামন্ত্রীর ঘোষণার পর আন্তঃশিক্ষা বোর্ড সমন্বয় সাব-কমিটির সভাপতি অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান বলেছিলেন, জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা নিতে তারা প্রস্তুত। যে মন্ত্রণালয়ের অধীনেই পরীক্ষা হোক, পরীক্ষার্থীদের কোনো অসুবিধা হবে না।

জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা আয়োজনে গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সব ধরনের জনবল না থাকায় শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে থাকা শিক্ষা বোর্ডগুলোর অধীনেই এই পরীক্ষার নেওয়ার কথা ছিল। আন্তঃশিক্ষা বোর্ড এই পরীক্ষা নেওয়ার সব ধরনের প্রস্তুতিও শেষ করেছে।

জেএসসি-জেডিসি পরীক্ষা নিতে শিক্ষা মন্ত্রণালয়, শিক্ষা বোর্ড, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর, প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের কর্মকর্তাদের নিয়ে কয়েকটি সভাও করেন গণশিক্ষামন্ত্রী। এবার এই পরীক্ষার সূচিও প্রকাশ করে এই মন্ত্রণালয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ