ঢাকা, মঙ্গলবার 25 October 2016 ১০ কার্তিক ১৪২৩, ২৩ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

সোনারগাঁয়ে শ্রমিক নিহতের ঘটনায় মহাসড়ক অবরোধ

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) সংবাদদাতা : ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার কাঁচপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় এক নারী শ্রমিক নিহত হয়। কাঁচপুর শিল্পাঞ্চলে অবস্থিত সিনহা এন্ড ওপেক্স গ্রুপের এক নারী শ্রমিক নিহত হওয়ার ঘটনায় গতকাল সোমবার সকালে ঢাকা-সিলেট মহাসড়ক এক ঘণ্টা অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল করে শ্রমিকরা। এসময় মহাসড়কের দুপার্শ্বে দু’কিলোমিটার এলাকা জুড়ে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। এতে যাত্রীদের চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়। 

শ্রমিকরা জানায়, গতকাল সকাল আটটার দিকে সিনহা এন্ড ওপেক্স গ্রুপের এক নারী শ্রমিক রাস্তা পারাপারের সময় একটি যাত্রীবাহী বাস চাপা দিলে ঘটনাস্থলেই তিনি নিহত হন। এ সংবাদ ছড়িয়ে পড়লে ওই কারখানার কয়েক হাজার শ্রমিক মহাসড়কে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করে। এসময় তারা ওই বাসের চালককে গ্রেফতার করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান। এসময় উত্তেজিত শ্রমিকরা সকাল আটটা থেকে ৯টায় পর্যন্ত এক ঘণ্টা মহাসড়ক অবরোধ করে রাখে। এতে মহাসড়কের সিমরাইল মোড় থেকে তারাবো বিশ্বরোড় পর্যন্ত তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। ফলে প্রচ- গরমে যাত্রীরা পায়ে হেঁটে গন্তব্যস্থলে যেতে বাধ্য হয়।  ওই কারখানার শ্রমিক আয়েশা আক্তার ও মাফিয়া বেগম জানান, আমাদের কারখানার সামনে মহাসড়কের উপর স্পিডবেকার না থাকায় প্রায় সময়ই সড়ক দুর্ঘটনায় অনেক শ্রমিক নিহত ও অনেকে আহত হয়ে পঙ্গুত্ব বরণ করছে। তারা আরো জানান, গত দুই বছরে কমপক্ষে ৭ জন শ্রমিক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে। বিষয়টি মালিক পক্ষকে বারবার অবহিত করার পরও তারা কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করছেন না।  এ ব্যাপারে সিনহা এন্ড ওপেক্স গ্রুপের প্রশাসনিক কর্মকর্তা কর্নেল (অবঃ) দেলোয়ার হোসেন জানান, সড়ক দুর্ঘটনায় আরাইহাজার উপজেলার বিষনন্দি গ্রামের দুখাই মিয়ার স্ত্রি ফিরোজা বেগম নামে এক নারী শ্রমিক নিহত হওয়ার ঘটনাকে কেন্দ্র করে সকালে শ্রমিক মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ মিছিল করে। কাঁচপুর হাইওয়ে থানার ওসি শেখ শরিফুর আলম জানান, একটি যাত্রীবাহী পরিবহনের চাপায় এক নারী শ্রমিক নিহত হওয়ার ঘটনায় শ্রমিক উত্তেজিত হয়ে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের কাঁচপুর এলাকায় অবস্থান নেয়। পরে তাদের মহাসড়ক থেকে সরিয়ে দেয়ার পর যানচলাচল স্বাভাবিক হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ