ঢাকা, শুক্রবার 28 October 2016 ১৩ কার্তিক ১৪২৩, ২৬ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

মার্কিন উপস্থিতিতে চীনের সামরিক মহড়া শুরু

২৭ অক্টোবর, রয়টার্স : দক্ষিণ চীন সাগরের দখল কোনোভাবে শিথিল করতে রাজি নয় চীন। আর সেজন্য চীন কোনো কিছুতেই পিছিয়ে আসতে রাজি নয়। জানা গেছে, দক্ষিণ চীন সাগরে নিজেদের দাপট অব্যাহত রাখতে ও বলা যায় আরো কিছুটা বাড়াতে গতকাল বৃহস্পতিবার থেকে সমুদ্রে সামরিক অনুশীলন শুরু করছে চীন। সেজন্য বাকি অসামরিক জাহাজগুলিকে ওই এলাকা থেকে দূরে থাকারও নির্দেশ দিয়েছে সে দেশের সামুদ্রিক নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা প্রশাসন। এই বিতর্কিত এলাকায় চীন নিয়মিত সামরিক অনুশীলন করে। এবং এবারে সপ্তাহ খানেক আগে মার্কিন সামরিক জাহাজ পারাসেল দ্বীপের কাছাকাছি দেখা দিতেই দক্ষিণ চীন সাগরে অভিযান চালাতে তৎপর হয়ে উঠেছে চীন। চীনের দ্বীপ প্রদেশ হাইনান ও উত্তর-পূর্বে পারাসেল দ্বীপের উপরে ভিয়েতনাম, তাইওয়ানের মতো ছোট দেশগুলোরও দাবি রয়েছে। তবে সেসব পাত্তা না দিয়ে সেই অঞ্চলের অধিকার রয়েছে শুধু চীনের হাতে। সেই এলাকায় মার্কিন যুদ্ধজাহাজকে হুঁশিয়ারি হিসাবে গণ্য করেই চীন এই পদক্ষেপ করেছে বলে মনে করা হচ্ছে। তবে ঠিক কী করতে চলেছে জি জিনপিংয়ের সরকার তা নির্দিষ্ট করে কিছু জানানো হয়নি। শুধু অসামরিক চীনা জাহাজগুলোকে ওই এলাকা থেকে দূরে থাকতে বলা হয়েছে। কেন এমন পদক্ষেপ তা সম্পর্কে কিছু জানায়নি চীনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ও। ঘটনা হলো, এই দক্ষিণ চীন সাগরের উপর দিয়ে বিশ্বের মোট জাহাজের এক-তৃতীয়াংশ চলাচল করে। সাগরের নিচে তেল, প্রাকৃতিক গ্যাসসহ প্রাকৃতিক সম্পদের ভাণ্ডারে পরিপূর্ণ।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ