ঢাকা, শুক্রবার 28 October 2016 ১৩ কার্তিক ১৪২৩, ২৬ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বকশীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ওষুধ কালোবাজারে বিক্রির অভিযোগ

জামালপুর সংবাদদাতা : জামালপুরের বকশীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ওষুধ কালোবাজারে বিক্রির অভিযোগে এলাকায় তোলপাড় শুরু হয়েছে। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বকশীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সরকারি ওষুধ দীর্ঘদিন যাবৎ বিভিন্ন ক্লিনিক, প্যাথলজি ও ফার্মেসিতে বিক্রি করা হয় বলে অভিযোগ রয়েছে। শুধু তাই নয় ভুয়া রোগীর তালিকা তৈরি করে অ্যাম্বুলেন্স ব্যবহার দেখিয়ে উত্তোলন করা হয় হাজার হাজার টাকা। এ কাজ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের শীর্ষ কর্মকর্তা থেকে শুরু করে নিম্ন শ্রেণীর কর্মচারীরা জড়িত রয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। কালোবাজারে ওষুধ বিক্রির বিষয়টি জানাজানি হলে থলের বিড়ার বেরিয়ে পড়ে। জেনে যায় দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। ফাঁস হয়ে যায় সব গোঁমর। বিষয়টি তদন্ত করার জন্য বকশীগঞ্জ উপজেলা পরিসংখ্যান কর্মকর্তাকে তদন্তের দায়িত্ব দিয়েছে টাঙ্গাইল দুদকের উপ-পরিচালক বোরহান উদ্দিন। এরপর থেকেই উপজেলা পরিসংখ্যান কর্মকর্তা মো. শফিউল্লাহ প্রাথমিক তদন্ত শুরু করেছেন। তিনি ইতোমধ্যে সংশ্লিষ্টদের গতিবিধি লক্ষ্য করাসহ বিভিন্ন প্রাইভেট ক্লিনিক, প্যাথলজি ও ফার্মেসিগুলোকে নজরদারিতে রেখেছেন।

যুবকের লাশ উদ্ধার

জামালপুরের মেলান্দহে রেলওয়ের ঝিনাই ব্রিজের নিচ থেকে মো. ওবায়দুল্লাহ (২৫) নামে যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। তার বাড়ি মেলান্দহের শিরিঘাট বানিয়াবাড়ি গ্রামে। জামালপুর রেলওয়ে থানার ওসি মো. নাছিরুল ইসলাম জানানা- ধারণা করা হচ্ছে সোমবার কোনো এক সময় ট্রেন থেকে পড়ে ঝিনাই ব্রিজের নিচে পানিতে পড়ে যেতে পারে। সোমবার বেলা ১১টার দিকে লাশ ভাসতে দেখে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয় লোকজন। পরে লাশ জামালপুর মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ