ঢাকা, শনিবার 29 October 2016 ১৪ কার্তিক ১৪২৩, ২৭ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

সান্তাহারে নকল কেমিক্যাল পণ্য ও কারখানার সন্ধান

আদমদীঘি (বগুড়া) সংবাদদাতাঃ গত সোমবার রাতে বগুড়ার আদমদীঘির সান্তাহার টাউন ফাঁড়ী পুলিশ শহরের সাহেবপাড়া ও পাথরকুটা মহল্লায় ছয় রকমের কেমিক্যাল পণ্য নকল করার কারখানার সন্ধান পেয়েছে। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে আদমদীঘি উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রেজাউল করিম ওই কারখানা মালিক হামিদুল ইসলাম ওরফে মেজরকে ৬ মাসের কারাদণ্ড প্রদান করেন। এ সময় আদমদীঘি থানার অফিসার ইনচার্জ শওকত কবিরও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের বগুড়া অঞ্চলের সহকারী পরিচালক শরিফুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন। মঙ্গলবার দুপুরে ওই বিপুল পরিমাণ নকল পণ্য সামগ্রী ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে এবং সিলগালা করে দেয়া হয়েছে সাহেবপাড়ার অবৈধ দখল করা ওই রেলওয়ে কোয়াটার।
জানা গেছে, শহরের পাথরকুটা মহল্লার মৃত ময়েজ উদ্দিনের ছেলে হামিদুল ইসলাম মেজর সাহেবপাড়ায় রেলওয়ের একটি দ্বিতল বাসার উপরতলায় অবৈধ ভাবে বসবাসের পাশাপাশি দীর্ঘ দিন থেকে দেশের সুনামধন্য কোম্পানি গুলোর মধ্যে ছয় রকম কেমিক্যাল পণ্য নকল করে বাজারজাত করে আসছিল। আরোও জানা জানা যায়, রেলওয়ে কোয়াটার ছাড়াও তার আরেক বাড়ি শহরের পাথরকুটা মহল্লায়ও সে একই রকম কারখানা খুলেছে। সান্তাহার পুলিশ ফাঁড়ির টিএসআই সিদ্ধার্থ সাহাসহ সঙ্গীয় ফোর্স গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এই অভিযান চালিয়ে টয়লেট ক্লিনার হারপিকের আদালে ‘হারপিক’টাইলস ক্লিনার ভিক্সল, কার-মাইক্রো ক্লিনার শ্যাম্পু, ভিম এর আদলে ‘ভিম’ রং উজ্জল করার তারপিন এর আদলে ‘থিনার’ (যা কেরোসিন তেল) এবং গ্লাস ক্লিনার এর মত বিপুল পরিমাণ নকল পণ্য উদ্ধার ও জব্দ করেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ