ঢাকা, সোমবার 31 October 2016 ১৬ কার্তিক ১৪২৩, ২৯ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ভেড়ামারায় ইউএনও শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত

ভেড়ামারা (কুষ্টিয়া) সংবাদদাতা : প্রাথমিক শিক্ষা রির্সোস সেন্টারের এক সহকারী ইন্সট্রাক্টরের হামলার শিকার হয়ে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত হয়েছেন কুষ্টিয়ার ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শান্তি মনি চাকমা (৪৬)। গতকাল রোববার সকাল ১১টায় উপজেলা পরিষদ’র ইউএনও’র নিজস্ব কার্যালয়েই তিনি এ লাঞ্ছনার শিকার হন। এসময় হামলাকারী হত্যার উদ্দ্যেশে ইউএনও’র দিকে পেপার ওয়েট ছুঁড়ে মারেন। উপজেলা সিনিয়র মৎস্য অফিসারসহ অফিসের স্টাফরা ওই হামলাকারীকে নিবৃত্ত করেন। পরে তাকে আটক করে ভেড়ামারা থানা পুলিশের হাতে সোপর্দ করা হয়েছে। এ সংবাদ শুনেই দ্রুত ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন ভেড়ামারা সার্কেলের সহকারী সিনিয়র পুলিশ সুপার কামরুল ইসলাম।
জানা গেছে, জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) পরীক্ষায় ডিউটি দেওয়াকে কেন্দ্র করে চরম অসন্তোষ প্রকাশ করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার শান্তি মনি চাকমাকে গালিগালাজ করে ভেড়ামারা প্রাথমিক শিক্ষা রির্সোস সেন্টারের সহকারী ইন্সট্রাকটর রমেন্দ্রনাথ বিশ্বাস। ডিউটি করতে অস্বীকৃতি জানিয়ে চিঠি গ্রহণ না করে ইউএনও’র পিয়ন আব্দুর রশিদ কে ফিরিয়ে দেন। এরপর গতকাল রোববার সকাল ১১টায় ইউএনও শান্তি মনি চাকমা রমেন্দ্রনাথ কে ডেকে পাঠান এবং তিনি অফিসে আসেন। এসময় কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে সরকারি বিধি লঙ্ঘন করে ইউএনওকে গালিগালাজ করে টেবিলে থাকা পেপার ওয়েট ছুড়ে মারেন। তা লক্ষ্য ভ্রষ্ট হলে পায়ের স্যান্ডেল খুলে ইউএনওকে মারতে ছুটে যায় এবং লাথি মারেন। এ সময় উপজেলা সিনিয়র মৎস্য অফিসার গোলাম সরোয়ারসহ অফিসের অনান্য স্টাফরা তাকে নিবৃত্ত করে আটক করে।
ভেড়ামারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শান্তি মনি চাকমা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, জেএসসি পরীক্ষার সরকারি ডিউটি তাকে দেওয়া হয়েছিল। সে চিঠি তিনি গ্রহণ না করায় তাকে অফিসে ডেকে পাঠানো হয়েছিল। এসময় তাকে প্রশ্ন করলে তিনি ক্ষিপ্ত হয়ে আমাকে হত্যার উদ্দেশে পেপার ওয়েট ছুড়ে মারেন এবং আঘাত করেন।
ভেড়ামারা মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ নূর হোসেন খন্দকার জানিয়েছেন, এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের অফিস সহকারী হানিফ উদ্দীন বাদী হয়ে দঃবিঃ ১৮৮,৩০৭,৩৫৩ ধারায় একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ