ঢাকা, সোমবার 31 October 2016 ১৬ কার্তিক ১৪২৩, ২৯ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

আশুলিয়ার বিভিন্ন স্থানে গড়ে তোলা হয়েছে অবৈধ খাদ্য দ্রব্য তৈরির বেকারি কারখানা

সাভার সংবাদদাতা : নিয়ম নীতির তোয়াক্কা না করেই সাভারের আশুলিয়ার বিভিন্ন স্থানে গড়ে তোলা হয়েছে অবৈধ খাদ্য দ্রব্য  তৈরির বেকারী কারখানা। ওই সব কারখানায় নোংরা পরিবেশে  তৈরি হচ্ছে খাদ্যদ্রব্য। অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে  তৈরি করা নানান প্রকার খাদ্য দ্রব্য বাজারজাত করে বিক্রি করে আসছে কারখানার মালিকরা। এতে স্বাস্থ্য ঝুঁকির সম্মুখীন হচ্ছেন আশুলিয়াবাসী। এসব কারখানাতে নেই কর্তৃপক্ষের বা বিএসটিআই এর অনুমোদন। সাভারের আনোয়ার জং আশুলিয়া সড়কের আশুলিয়ার চারাবাগ এলাকায় লিমা বেকারী নামের একটি নোংরা কারখানা গড়ে তুলেছেন এক ব্যক্তি। গতকাল রবিবার সকালে খাদ্যদ্রব্য  তৈরি করাকালীন সরেজমিনে ওই বেকারী পরিদর্শন কালে দেখা যায় শিশু শ্রমিকরা অস্বাস্থ্যকর নোংরা পরিবেশে ওই বেকারীকে খাদ্য দ্রব্য তৈরি করছেন।
এলাকাবাসী জানায়, লিমা বেকারীতে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে খাদ্য তৈরি হচ্ছে। মানা হচ্ছে না খাদ্যদ্রব্য তৈরীর আইন। আইন তোয়াক্কা না করেই কারিগররা হাতে পড়ছে না গ্ল্যাবস। পড়ছে না মুখে মাস্ক আর পোশাক। খালি হাতে ময়দাসহ খাদ্যদ্রব্য প্রস্তুত করতে গিয়ে  কারখানার ভেতরে প্রচণ্ড গরমে কারিগরদের শরীরের ঘাম মিশে যাচ্ছে খাদ্যদ্রব্যের সাথে। ওই কারখানাতে ১১ জন শ্রমিক রয়েছে । ওই কারখানাতে কারিগরদের পাশাপাশি শিশু শ্রমিকরাও কাজ করতে দেখা গেছে।
স্থানীয়রা আরো জানান প্রশাসনের নজরদারি না থাকায় সাভারের আশুলিয়ায় যত্রতত্র গড়ে তোলা হচ্ছে খাদ্যদ্রব্যের অবৈধ কারখানা। নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে  তৈরি করা হচ্ছে এসব কারখানায় পাউ রুটি,কেক, বিস্কুটসহ নানান জাতের খাদ্যদ্রব্য। অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে তৈরি করে খাদ্যদ্রব্য ভ্যান গাড়িতে করে বিভিন্ন দোকানে বিক্রি করছেন তারা। এগুলো খেয়ে ইতিমধ্যে আশুলিয়ার বিভিন্ন এলাকার গত কয়েকদিনে নারী ও শিশুসহ অসুস্থ হয়েছেন অন্তত ১০ জন। মালিকরা হাতিয়ে নিচ্ছেন লক্ষ লক্ষ টাকা। স্বাস্থ্য ঝুঁকির সম্মুখীন  হচ্ছেন এলাকাবাসী।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ