ঢাকা, মঙ্গলবার 01 November 2016 ১৭ কার্তিক ১৪২৩, ৩০ মহররম ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

বাড়ি রাখুন ছবির মত

সুন্দরভাবে বাড়ি শুধু সাজালেই তো হল না, যাতে সৌন্দর্য এবং স্বাস্থ্য বজায় থাকে সেটাও লক্ষ্য রাখতে হবে। কীভাবে বাড়ির হাইজিন বজায় রাখবেন তার সহজ কিছু টিপস।
১) নিয়মিত ডাস্টিং করুন। রোজ অনেক ধুলোবালি জমে আপনার বাড়িতে, যা রীতিমত আন-হাইজিনিক। তাই নিয়মিত ঘর পরিষ্কার করুন।
২) ব্রেকফাস্ট, লাঞ্চ বা ডিনারের পর থালা বাসন ফেলে রাখবেন না।  সঙ্গে সঙ্গে ধুয়ে ফেলুন। কারণ উচ্ছিষ্ট খাবারে জীবাণু সৃষ্টি হতে পারে এবং বিভিন্ন পোকামাকড়ও আসতে পারে।  তাছাড়া বাসি থালাবাসন সিঙ্কে পড়ে থাকলে সেটা দেখতে মোটেই ভালো লাগে না।
৩) সপ্তাহে নিজের সুবিধামত একদিন ফ্রিজ পরিষ্কার করুন। শুধু ডিপ ফ্রস্ট করে ছেড়ে দিলেন তা নয় কিন্তু। বরং পরিষ্কার কাপড় দিয়ে সবজির ট্রে এবং প্রত্যেকটা র‌্যাক পরিষ্কার করুন।  ফ্রিজে থাকা সব দ্রব্যের এক্সপায়েরি ডেট চেক করে বাস দ্রব্যাদি ফেলে দিন।  ফ্রিজে রাখা বোতলের জল নিয়মিত বদলান।
৪) দামি টিউব, ল্যাম্পশেড, শোপিস ও অন্যান্য ডেকোরেটিং পিস দিয়ে যখন ঘর সাজিয়েছেন তখন তা পরিষ্কার করার দায়িত্ব তো আপনাকেই নিতে হবে যাতে আইটেমগুলো নিজের জৌলুস না হারায়।  দিনে ১৫ মিনিট সময় এইসব জিনিস পরিষ্কার করার জন্য বরাদ্দ করুন।
৫) রান্নাঘরে ডাস্টবিন তো আছেই। কিন্তু কোনও জিনিস ফেলার হলে রান্নাঘরে গিয়ে ফেলতে অনেকেরই ল্যাদ লাগে। তাই ঘরে ছোট ছোট ডাস্টবিন রাখুন, যাতে একটা নির্দিষ্ট জায়গায় ট্র্যাশ জমা হয়, ঘরে ছড়িয়ে ছিটিয়ে ময়লা পড়ে না থাকে।
৬) জঞ্জাল জমাবেন না। নির্দিষ্ট সময়ে তা গারবেজ বিনে ট্র্যাশ করুন। তাছাড়া সরকারি সাফাইকর্মীরা দিনের নির্দিষ্ট সময়ে ময়লা নিতে আসেন। সময় করে ময়লা তাদের গাড়িতে ফেলে দিন।
৭) খুব বেশী আসবাব দিয়ে ঘর ঘিঞ্জি না করাই ভালো। ঘরকে সিম্পল করে সাজান।  অনেক সময় সাধারণের মধ্যে দিয়েও বাড়িকে অসাধারণ করে তোলা যায়। আর যত কম জিনিস হবে তত স্পেস পাবেন, ঘরে হাওয়া বাতাস খেলবে এবং আপনার পরিষ্কার করতেও সুবিধা হবে।
৮) যদি ঘরে পোষ্য থাকে তাহলে তাকে পরিষ্কার রাখুন। লোম ট্রিম করবেন নিয়মিত, কারণ সারা ঘরে লোম ছড়িয়ে থাকলে তা মোটেই হাইজিনিক নয়। আর তাকে বিছানা থেকে দূরে রাখুন, আপনার বেডরুম পরিষ্কার থাকবে। তাছাড়া সারাদিনের ধকলের পর লোম ভর্তি বিছানায় গুড নাইট স্লিপও আসবে না।
৯) বাইরের জুতো সব সময় ঘরের বাইরে রাখুন। দরকার হলে দরজার বাইরে জুতোর র‌্যাক রাখুন।  এতে ঘর পরিষ্কার থাকবে।
১০) বাড়ির বাইরেটাও পরিষ্কার রাখতে হবে কিন্তু। অতিথিরা বাইরে দিয়েই ঘরে আসেন ফলে ঘরের বাইরেরটাও ডাস্টিং করবেন এবং অবশ্যই ডোরম্যাট পরিষ্কার রাখবেন।
১১) ঘরের মেঝে রাখুন পরিষ্কার। ফিনাইল ও অন্যান্য জীবাণুনাশক ব্যবহার করুন ঘর মোছার সময়।
১২) সুন্দর বাতাবরন পাওয়ার জন্য রুম স্প্রে ব্যবহার করুন।
১৩) নিয়মিত পেস্ট কন্ট্রোল করুন।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ