ঢাকা, বুধবার 02 November 2016 ১৮ কার্তিক ১৪২৩, ১ সফর ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

শীতে ওয়ালটনের অর্ধ-শতাধিক মডেলের হোম এ্যাপ্লায়েন্সেস

শীত আসছে। শুরু হয়ে গেছে শীতের প্রস্তুতিও। দেশের শীর্ষ ইলেক্ট্রনিক্স ব্র্যান্ড ওয়ালটন এবারের শীতে ক্রেতাদের জন্য প্রস্তুত রাখছে অর্ধ-শতাধিক মডেলের হোম এ্যাপ্লায়েন্সেস। শীতকালে সাধারণত ঘর-গৃহস্থালীর কাজে বিভিন্ন ধরনের ইলেক্ট্রনিক্স এ্যাপ্লায়েন্স দরকার হয়। সব মিলিয়ে এই সময়টায় হোম এ্যাপ্লায়েন্সের চাহিদাও থাকে বেশি। জীবন যাত্রার মান বাড়ায় এসব পণ্যের স্বাভাবিক চাহিদাও দিন দিন বাড়ছে।
জানা গেছে, শীতকালে সারা দেশে বিভিন্ন ধরনের ইলেক্ট্রনিক্স হোম এ্যাপ্লায়েন্সের ব্যাপক চাহিদা তৈরি হয়। ইদানীং মানুষের জীবনযাত্রার মানোন্নোয়নের ফলে পোশাকের পাশাপাশি বাড়তি চাহিদা তৈরি হয়েছে শীতকালীন বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিক্স হোম এ্যাপ্লায়েন্সের। আর এই বাড়তি চাহিদা মাথায় রেখেই ওয়ালটনের আগাম প্রস্তুতি।
শীতে যেসব গৃহস্থালী পণ্যের চাহিদা বেশি থাকে তার মধ্যে রয়েছে ওয়াশিং মেশিন, রুম হিটার, ইলেকট্রিক কেটলি, ইলেকট্রিক ও মাইক্রোওয়েব ওভেন, রাইস কুকার, কারী কুকার, কফি মেকার, রুটি মেকার, ইন্ডাকশন কুকার, আইরন, ওয়াটার হিটার, হেয়ার ড্রায়ার ও স্ট্রেইটনার, ইলেকট্রিক লাঞ্চ বক্স, ভ্যাকুয়াম ফ্লাস্ক ইত্যাদি। মাথাপিছু আয় বৃদ্ধির প্রেক্ষিতে মানুষের জীবনযাত্রার মানোন্নয়ন, বিদ্যুৎ ব্যবস্থার উন্নয়ন এবং সহজে ব্যবহার উপযোগী এসব পণ্যের দাম কমে যাওয়ায় ঘরে ঘরে প্রযুক্তি পণ্যের ছোঁয়া লেগেছে।
ওয়ালটন সূত্রমতে, ২০১৫ সালের নভেম্বর থেকে ২০১৬ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত তিন মাসে ২০১৪ সালের একই সময়ের তুলনায় দ্বিগুণের বেশি হোম এ্যাপ্লায়েন্সেস বিক্রি হয়েছে। এবছরেও শীতকালীন ইলেক্ট্রনিক্স হোম এ্যাপ্লায়েন্সের সিংহভাগ বাজার নিজেদের দখলে নেয়ার টার্গেট নিয়েছে ওয়ালটন। লক্ষমাত্রা পূরণে কয়েক মাস আগে থেকেই ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে তারা। ঢেলে সাজানো হয়েছে মজুদ ব্যবস্থাপনা ও বিপণন কৌশল।  ইতোমধ্যে, ওয়ালটন প্লাজা ও দেশের অন্যান্য আউটলেটগুলোতে গড়ে তোলা হয়েছে পণ্যের পর্যাপ্ত মজুদ।
কর্তৃপক্ষ জানায়, এখন বাজারে রয়েছে ওয়ালটনের অর্ধ-শতাধিক মডেলের হোম এ্যাপ্লায়েন্সেস। এর মধ্যে আছে ৬ মডেলের ওয়াশিং মেশিন; ৭ মডেলের রুম হিটার; ২০টি মডেলের রাইস কুকার; ১৩ মডেলের ইলেকট্রিক ও মাইক্রোওয়েব ওভেন, ১২ ধরনের ইলেকট্রিক কেটলি; ১০ মডেলের আয়রন, ৩টি মডেলের ভ্যাকুয়াম ফ্লাস্ক; ২ টি করে মডেলের হেয়ার ড্রায়ার ও স্ট্রেইটনার; রুটি মেকার, কারী কুকার ও ওয়াটার হিটার,  এবং ১টি করে মডেলের ইন্ডাকশন কুকার, ইলেকট্রিক লাঞ্চ বক্স, মপ সেট একং কফি মেকার ইত্যাদি। গ্রাহকদের রুচি, চাহিদা ও ক্রয়ক্ষমতা অনুযায়ী এসব পণ্যের ডিজাইন তৈরি করছে ওয়ালটনের শক্তিশালী আরএন্ডডি (পণ্য উন্নয়ন ও গবেষণা) টিমের প্রকৌশলীরা। তারা পণ্যের দীর্ঘস্থায়িত্ব নিশ্চিত কল্পে মান নিয়ন্ত্রণে অনুসরণ করছে জিরো টলারেন্স নীতির। প্রেসবিজ্ঞপ্তি।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ