ঢাকা, বুধবার 02 November 2016 ১৮ কার্তিক ১৪২৩, ১ সফর ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ইলিশ ধরার অপেক্ষায় উপকূলের ৩০ হাজার জেলে

স্টাফ রিপোর্টার : ইলিশ ধরার উপর সরকারের নিষেধাজ্ঞা শেষ হচ্ছে আজ (বুধবার)। ইতিমধ্যে সব প্রস্তুতি শেষ করে ইলিশ শিকারের প্রহর গুণছেন মনপুরা উপকূলের ৩০ হাজার জেলে। সরকারি নিষেধাজ্ঞার ২২ দিন মেঘনায় ইলিশ শিকারে যাননি উপকূলের বেশিরভাগ জেলে। এদের মধ্যে যেসব অসাধু জেলে নদীতে মাছ শিকারে গেছেন তারা ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে আটক হয়ে জেল-জরিমানার মুখোমুখি হয়েছেন। 

নিষেধাজ্ঞার আগে দুই মাস ব্যাপক মাছ ধরা পড়ায় এইবার বেশিরভাগ জেলে নিষেধাজ্ঞার সময় নদীতে মাছ শিকারে যায়নি বলে গত বছরের চেয়ে এ বছর অভিযানের সফলতা দেখছে মৎস্য অধিদফতর।

সরেজমিনে উপকূলের ১২টি মৎস্য ঘাট ঘুরে দেখা যায়, জেলেরা নৌকা ও জাল মেরামতসহ সব প্রস্তুতি শেষ করে অপেক্ষায় রয়েছেন মাছ শিকারের। কয়েকটি ঘাটের জেলেরা জোরেশোরে শেষ সময়ে দ্বিগুণ শ্রমিক দিয়ে নৌকা মেরামতসহ জাল মেরামতের কাজ করছে। অনেকে নৌকায় জাল উঠানোর কাজে ব্যস্ত। এদিকে বন্ধ মাছের আড়তের গদি ঘরগুলো ধোয়ামোছার কাজে ব্যস্ত সময় পার করছে মালিকরা। জেলে সমিতির সভাপতি সুলতান মাঝি জানান, জেলেরা সব প্রস্তুতি সম্পন্ন করেছে। মাছ ধরার অপেক্ষায় উপকূলের ৩০ হাজার জেলে। এছাড়াও এই বছর ব্যাপক মাছ পড়ায় জেলেরা নিষেধাজ্ঞার সময়ে নদীতে মাছ শিকারে যায়নি। এতে মা ইলিশ পর্যাপ্ত ডিম ছেড়েছে। আগামীতে প্রচুর মাছ পাওয়া যাবে।

আড়তদার মতিন মাতাব্বর, বাবুল মাতাব্বর, লিটন শাহ, শাহ আলম ব্যাপারী, আমানত উল্লা আলমগীরসহ অনেকে জানান, আড়তে থাকা জেলেরা প্রস্তুত। বুধবার রাত ১২টার পরে ইলিশ শিকারে নামবেন তারা। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ মনোয়ার হোসেন জানান, নিষেধাজ্ঞা ২ নবেম্বর শেষ হবে তারপর জেলেরা নদীতে মাছ ধরতে যেতে পারবে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ