ঢাকা, বুধবার 02 November 2016 ১৮ কার্তিক ১৪২৩, ১ সফর ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

সিপিবির নেতৃত্বে ফের সেলিম-জাফর

স্টাফ রিপোর্টার : গুঞ্জন থাকলেও বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির (সিপিবি) শীর্ষ দুই পদে কোনো পরিবর্তন আসেনি, তবে কেন্দ্রীয় কমিটিতে নতুন এসেছেন বেশ কয়েকজন। দেশের অন্যতম প্রাচীন দলটির একাদশ কংগ্রেসে গঠিত কমিটিতে সভাপতি পদে মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম এবং সাধারণ সম্পাদক পদে সৈয়দ আবু জাফর আহমেদই থাকছেন। অর্থাৎ আগামী চার বছরও তারাই দলটিতে নেতৃত্ব দেবেন। ২০১২ সালের কংগ্রেসেও তারা নির্বাচিত হয়েছিলেন।

কাউন্সিলে নির্বাচিত ৪৩ সদস্যের কেন্দ্রীয় কমিটি গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে বৈঠক করে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকসহ নতুন নেতৃত্ব নির্বাচন করে বলে কংগ্রেস পরবর্তী এক সাংবাদিক সম্মেলনে জানানো হয়। পুরানা পলটনস্থ মুক্তিভবনে অনুষ্ঠিত উক্ত সাংবাদিক সম্মেলনে নতুন কমিটির ঘোষণা দেন দলের সভাপতিম-লীর সদস্য ও কংগ্রেস মুখপাত্র শাহ আলম। 

গত ২৮ থেকে ৩১ অক্টোবর সিপিবির একাদশ জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। কংগ্রেস শুরুর পর সাধারণ সম্পাদক পদে পরিবর্তনের গুঞ্জন চলছিল। রুদ্ধদ্বার কাউন্সিলে প্রতিনিধি ও পর্যবেক্ষকরা পুরনোদের উপর ভরসা রাখলেও প্রতিটি ক্ষেত্রে ভোটাভুটি হয় বলে সিপিবি নেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়।

সিপিবির গঠনতন্ত্র অনুযায়ী সভাপতিম-লীর সদস্যদের দলের সার্বক্ষণিক কর্মী হতে হয়। অন্য কোনো পেশায় থেকে এই পদে আসা যায়। এবারের কংগ্রেসে ওই ধারা সংশোধনের প্রস্তাব এলেও তা ভোটাভুটিতে নাকচ হয়ে যায়। কংগ্রেসে ৫৩০ জন প্রতিনিধি ভোট দেন। যার মধ্যে ভোট বাতিল হয় ২১ জনের। ৫০৯ জনের ভোটে ৪৩ জন কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নির্বাচিত হন। এই কেন্দ্রীয় কমিটির সর্বোচ্চ সদস্য সংখ্যা হবে ৪৯। বাকি ছয়টি পদ পরে পূরণ করা হবে। কংগ্রেসে ১৯৫ সদস্যবিশিষ্ট জাতীয় পরিষদও গঠন করা হয়।

নতুন কমিটিতে প্রেসিডিয়াম সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন হায়দার আকবর খান রনো, মোহাম্মদ শাহ আলম, লক্ষ্মী চক্রবর্তী, সাজ্জাদ জহির চন্দন, রফিকুজ্জামান লায়েক, শাহীন রহমান, মিহির ঘোষ ও অনিরুদ্ধ দাস অঞ্জন। কেন্দ্রীয় কমিটির উপদেষ্টা করা হয়েছে সিপিবির সাবেক সভাপতি মঞ্জুরুল আহসান খান, সহিদুল্লাহ চৌধুরী, জসিমউদ্দিন ম-ল, শাহাদাত হোসেনকে। 

সাংবাদিক সম্মেলনে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সাম্প্রদায়িক সহিংসতার ঘটনায় নিন্দা জানানো হয়। আজ বুধবার সিপিবির পক্ষ থেকে পাঁচজনের একটি দল সেখানে যাবে। এ ছাড়া বিকেল চারটায় জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে সমাবেশ করবে।

উল্লেখ্য, ব্রিটিশ আমলে গঠিত সর্বভারতীয় কমিউনিস্ট পার্টির উত্তরাধিকার হিসেবে বাংলাদেশে ক্রিয়াশীল সিপিবি। পাকিস্তান আমলে নানা চড়াই-উৎরাই পেরিয়ে বাংলাদেশের স্বাধীনতার পর সিপিবি নামে দলটির যাত্রা শুরু হয়। ১৯৭৩ সালে অনুষ্ঠিত কংগ্রেসে মণি সিংহ সভাপতি ও মোহাম্মদ ফরহাদ সভাপতি নির্বাচিত হন। ১৯৮৭ সালে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত ফরহাদ সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। ১৯৯৩ সালের কংগ্রেসে শ্রমিক নেতা সহিদুল্লাহ চৌধুরীকে সভাপতি এবং ডাকসুর সাবেক ভিপি মুজাহিদুল ইসলাম সেলিমকে সাধারণ সম্পাদক করে নতুনভাবে যাত্রা শুরু করে সিপিবি। ১৯৯৯ সালে দলের কংগ্রেসে সাধারণ সম্পাদক পদে সেলিম থাকলেও সভাপতি পদে আসেন শ্রমিক নেতা মনজুরুল আহসান খান। ২০০৩ ও ২০০৮ সালের কংগ্রেসেও একই নেতৃত্ব বহাল থাকে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ