ঢাকা, বৃহস্পতিবার 03 November 2016 ১৯ কার্তিক ১৪২৩, ২ সফর ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

নাসিরনগরে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা পরিদর্শনে নাগরিক কমিটির নেতৃবৃন্দ ॥ ওসি প্রত্যাহার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সংবাদদাতা : সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে পবিত্র কাবা শরীফ অবমাননার করে আপত্তিকর ছবি পোস্ট করার প্রতিবাদে মিছিল চলাকালে নাসিরনগর উপজেলা সদরে হিন্দু সম্প্রদায়ের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান, বাড়িঘর ও মন্দিরে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনায় গতকাল বুধবার ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন বাংলাদেশ নাগরিক কমিটি, মানবাধিকার কমিশন, হিন্দু বৌদ্ধ, খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ। আইন ও শালিস কেন্দ্রের নিবার্হী পরিচালক সুলতানা কামালের নেতৃত্বে নাগরিক কমিটি, ডঃ এনামুল হক চৌধুরী নেতৃত্বে মানবাধিকার কমিশন ও ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রানা দাস গুপ্তের নেতৃত্বে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান ঐক্য পরিষদের প্রতিনিধিদল পৃথক পৃথকভাবে হরিপুরসহ নাসিরনগর গৌর মন্দির, দত্তবাড়ি মন্দির, কালিবাড়ি মন্দির, জগন্নাথ মন্দিরসহ বিভিন্ন বাড়িঘর পরিদর্শন করেন ও আহত এবং ক্ষতিগস্ত হিন্দু পরিবারের লোকজনের সাথে কথা বলেন। পরিদর্শনকালে আইন ও শালিস কেন্দ্রের নিবার্হী পরিচালক সুলতানা কামাল বলেন, সুষ্ঠু তদন্ত করে এ ঘটনার সাথে  যারা জড়িত তাদেরকে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেয়ার দাবি জানান। এদিকে বুধবার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কার্যনিবার্হী কমিটির সদস্য, পাবর্ত্য চট্রগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটি ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি র.আ.ম. উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপি হারিপুর গ্রামে বাড়িঘর ও মন্দিরে হামলা, ভাংচুরের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। অন্যদিকে হিন্দু সম্প্রদায়ের ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান, বাড়িঘর ও মন্দিরে হামলা, ভাংচুর ও লুটপাটের ঘটনায় নাসিরনগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আবদুল কাদেরকে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ