ঢাকা, শুক্রবার 04 November 2016 ২০ কার্তিক ১৪২৩, ৩ সফর ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

মিরাজের কাছে বড় কিছু চান অধিনায়ক সামি

স্পোর্টস রিপোর্টার : বিপিএলে রাজশাহী কিংসের নেতৃত্ব দিবেন ড্যারেন স্যামি। আর স্যামির দলেই খেলবেন মেহেদি হাসান মিরাজ। ফলে বিপিএলে মিরাজের উপরই বেশি প্রত্যাশা স্যামির। মিরপুর টেস্টে অসাধারণ বোলিং করে বাংলাদেশকে জেতালেন মেহেদী হাসান মিরাজ। পরদিনই টুইটারে মিরাজের ছবি শেয়ার করে ড্যারেন স্যামি লিখেছিলেন, ‘রোমাঞ্চকর এই প্রতিভার সঙ্গে মাঠে নামতে তর সইছে না!’ স্যামির সেই অপেক্ষার প্রহর শেষ হতে চলল। শুধু একসঙ্গে মাঠে নামাই নয়, দুটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ী একমাত্র অধিনায়কই আপাতত মিরাজের অধিনায়ক। স্যামির নেতৃত্বেই এবার বিপিএলে রাজশাহী কিংসে খেলবেন মিরাজ। বাংলাদেশ-ইংল্যান্ড টেস্ট সিরিজ খুব আগ্রহ নিয়ে দেখেছেন স্যামি। স্বাভাবিকভাবেই তার নজর কেড়েছে মিরাজের বোলিং। গতকাল নতুন সতীর্থ আর নতুন দলের সঙ্গে মিরপুর একাডেমি মাঠে অনুশীলনও করেছেন এই অলরাউন্ডার।

মিরাজকে নিয়ে রোমাঞ্চের কথা তো টুইটারে আগেই জানিয়েছেন। প্রথম ম্যাচের আগে সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে স্যামি জানালেন তরুণ অলরাউন্ডারের কাছে তার প্রত্যাশার কথাও। স্যামি বলেন,‘ অনুশীলনে আসার সময় বাসে ওকে আমি বলেছি, ওর কাছ থেকে আমি বড় কিছু চাই। সে এথনও তরুণ। তবে এখনই সে যেভাবে দায়িত্ব নিতে শিখে  টেস্টে যেভাবে বোলিং করেছে, কিংসের হয়ে সে যা করতে পারে, সেটা ভেবে আমি দারুণ রোমাঞ্চিত। আমার বিশ্বাস, আমাদের জন্যও খুব ভালো করবে সে।’, বয়সভিত্তিক ক্রিকেটে আলো ছড়ানোর পর প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট হয়ে টেস্টেও শুরুটা দারুণ হয়েছে মিরাজের। তবে স্বীকৃত কোনো টি-টোয়েন্টি ম্যাচ খেলেননি এখনও। প্রত্যাশার ভার নিয়েই তার যাত্রা শুরু হচ্ছে ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ত সংস্করণে। এবারের বিপিএলের প্রথম ম্যাচেই বর্তমান চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের মুখোমুখি হবে স্যামি-মিরাজের রাজশাহী কিংস। ড্যারেন স্যামির কাজটা এমনিতেই কঠিন। রাজশাহী কিংসের অধিনায়ক হিসেবে প্রথম ম্যাচেই কাজটি আরও কঠিন হয়ে যাচ্ছে। প্রতিপক্ষ যে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স! বাংলাদেশ দলের পালাবদলের নায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা কুমিল্লাকে অভিষেক আসরেই শিরোপা এনে দেওয়া অধিনায়ক। 

প্রথম ম্যাচেই চ্যাম্পিয়ন দল আর চ্যাম্পিয়ন অধিনায়কের বিপক্ষে লড়াই মানে চ্যালেঞ্জটা কঠিন। বাস্তবতাটা জানেন স্যামিও। মাশরাফিকে ভাসিয়েছেন প্রশংসায়। তবে চ্যালেঞ্জটাও নিচ্ছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজকে দুটি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জেতানো অধিনায়ক। মাশরাফিকে নিয়ে স্যামি বলেন, ‘মাশরাফি খুব ভালো অধিনায়ক, খুব ভালো মানুষ। ওদের দলটাও দারুণ। এজন্যই তো বর্তমান চ্যাম্পিয়ন। আমরা এই টুর্নামেন্টে নতুন। তবে আমরাও খুব আত্মবিশ্বাসী। মাঠে নেমে আমরা যদি পরিকল্পনা বাস্তবায়ন করতে পারি, আমরাও আশাবাদী।’ খেলাটা টি-টোয়েন্টি বলেই অতীত রেকর্ড বা কাগজ-কলমের হিসাবকে বড় করে দেখছেন না রাজশাহী কিংসের অধিনায়ক। তিনি বলেন, ‘টি- টোয়েন্টিতে কোনো একজন ক্রিকেটারই ম্যাচের মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারে। মোমেন্টাম যদি আমাদের সঙ্গে থাকে এবং আমরা সামনে বয়ে নিতে পারি, আমাদের পক্ষে ভালো কিছু করা সম্ভব।’

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ