ঢাকা, শুক্রবার 04 November 2016 ২০ কার্তিক ১৪২৩, ৩ সফর ১৪৩৮ হিজরী
Online Edition

ভেঙ্গে ফেলা হলো মোনায়েম খানের বাড়ির অবৈধ অংশ

স্টাফ রিপোর্টার : রাজধানীর বনানীতে অবৈধভাবে দখলে থাকা বাড়ি ও জমি থেকে পূর্ব পাকিস্তানের সাবেক গভর্নর মোনায়েম খানের পরিবারকে উচ্ছেদ করেছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন (ডিএনসিসি)। গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে বনানীর কবরস্থান সড়কে সরকারি রাস্তার জায়গা ও জমি দখল করে গড়ে ‘বাগ-ই-মোনায়েম’ বুলডোজার দিয়ে ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে।
এর আগে দুপুর আড়াইটার দিকে ডিএনসিসির প্রধান প্রকৌশলী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল সৈয়দ আনোয়ারুল ইসলাম বনানী কবরস্থানের সামনে সাংবাদিকদের এ বিষয়ে ব্রিফিং করার পরপরই শুরু হয় আলোচিত ‘বাগ-ই-মোনায়েম’ বাড়িটির উচ্ছেদ কার্যক্রম।
বিকেলে উচ্ছেদ অভিযান পরিদর্শন শেষে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র আনিসুল হক সাংবাদিকদের জানান, দীর্ঘ ৫০ বছর  ধরে পূর্ব পাকিস্তানের গভর্নর মোনায়েম খান পরিবারের কাছে অবৈধ দখলে থাকা বনানী কবর স্থানের পাশের ১০ কাঠা জায়গা রাস্তা প্রশস্ত করার কাজে লাগানো হবে। এ সময় দেশের অন্যান্য বেদখলকৃত জমি উদ্ধারে বিশেষ আদালত গঠনের দাবি জানান তিনি। মেয়র বলেন, স্থানীয়দের বসার স্থান হিসেবেও এটি ব্যবহার করা যেতে পারে। এতোদিন কেনো এই জমি দখলমুক্ত করার উদ্যোগ নেয়া হয়নি তা খতিয়ে দেখতে তিনি সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহবান জানান।
ডিএনসিসি সূত্র জানায়, কোনো বৈধ নথি দেখাতে না পারায় মূল সড়ক থেকে ১৬ ফুট ভেতরে প্রায় ১০ কাঠা জমির ওপর গড়ে তোলা অবৈধ ভবন ভেঙে ফেলা হয়। বনানীর  ১১০/এ নম্বরে ভুয়া হোল্ডিং বানিয়ে এ জমি দখল করা হয়।
সূত্র আরো জানায়, সরকারি ৫ বিঘা ১১ কাঠা জমি দখল করে গড়ে তোলা এই বাড়িতেই মোনায়েম খানের দুই কন্যা গড়ে তুলেছেন অন্বেষা নামে একটি স্কুল।
উল্লেখ্য, পাকিস্তানের অখ-তায় বিশ্বাসী মোনায়েম খান ১৯৭১ সালের ১৩ অক্টোবর ঢাকার বনানীর এ বাড়িতে মুক্তিবাহিনীর গুলীতে আহত হন। এরপর ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

অনলাইন আপডেট

আর্কাইভ